আজ : শনিবার, ২৭শে মে, ২০১৭ ইং | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

আ.লীগকে বিজয়ী করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে

সময় : ৪:৩৪ অপরাহ্ণ , তারিখ : ৩০ এপ্রিল, ২০১৭


আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করতে চিকিৎসক, শিক্ষকসহ সমাজের সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা এমন কোন কাজ না করি বা এমন কোন কথা না বলি যাতে আমাদের ক্ষতি হয়। জনগণ তাদের ক্যামেরা আমাদের দিকে তাক করে রেখেছে। শেষ সময়ে সবাই বেশি বেসামাল হয়ে পারে। কথাও বেসামাল হয়ে যায়, কাজেও বেসামাল হয়ে যায়। তাই আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।’ আজ রোববার মোহাম্মদ নাসিম শহীদ ডা. মিলন হলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও ২০তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খানের সভাপতিত্বে সভায় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আমাদের সবাইকে সাবধান হতে হবে। নিজেদের মধ্য কোন দলাদলি করা যাবে না। নিজেরা যদি দলাদলি করি তাহলে কেমন হয় বলেন? আপনারা ডাক্তার, আপনাদের কাজ জনগণকে সেবা দেয়া। কিন্তু আপনারা যদি দলা দলি করেন তা হলে জনগণ তো সেবা পাবেনা। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সকল অর্জন ধ্বংস করার জন্য নানা ষড়যন্ত্র চলছে। এটা আমাদের মনে রাখতে হবে। দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হলে আমাদেরকে আবার জনগনের ভোটে বিজয়ী হয়ে ক্ষমতায় আসতে হবে। তাই আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করতে আপনাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থেকে কাজ করতে হবে। আগামী নির্বাচন প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বলেন, কোন সংশয় নেই। আগামী নির্বাচন যথা সময়ে অনুষ্ঠিত হবে। কোন ফরমুলা দিয়ে কাজ হবে না। সংবিধান অনুযায়ি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে যথাসময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তাই বিএনপির বন্ধুদের বলি, ফরমুলা দেওয়া বাদ দেন, আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হন। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও ২০তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে জাতীয় ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব পতাকা উত্তোলন, বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থাপিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, বেলুন ও পায়রা উড়ানো হয়। এছাড়াও বিশ্ববিধ্যালয়ের বটতলা থেকে একটি শোভাযাত্রা বেরকরা হয়। শোভা যাত্রাটির উদ্বোধন করেন অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান।

Top