আজ : শনিবার, ২৯শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং | ১৬ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

একটি ‘স্থিরচিত্র’ই পাল্টে দিলো শাকিব-অপুর সম্পর্ক

সময় : ১:৪৬ অপরাহ্ণ , তারিখ : ১৪ এপ্রিল, ২০১৭


সম্প্রতি ‘টক অব দ্য কান্ট্রি’ শাকিব-অপুর প্রেম বিয়ে ও সন্তান হওয়ার বিষয়টি। টিভি টক শো থেকে শুরু করে এই বিষয়টি এখন পুরো বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের কাছে বহুল চর্চিত। দীর্ঘদিন অন্তরালে থাকার পর গত সোমবার(১০ এপ্রিল) চৈত্রের বিকেলে হঠাৎই এক বিস্ফোরণ ঘটালেন অপু বিশ্বাস। বেসরকারি একটি টেলিভিশনে সন্তান কোলে নিয়ে এসে সুপারস্টার শাকিব খানের সঙ্গে সমস্ত গোপন সম্পর্কের কথা ফাঁস করলেন তিনি। জানালেন, সুপারস্টার শাকিব খানকে নয় বছর আগে বিয়ে করার কাহিনী। বললেন, শাকিব ও তার সন্তান হওয়ার সময়কার স্ট্রাগলের কথাও।

কিন্তু সবকিছুর পরও ঘুরে ফিরে একটি প্রশ্নেই ঘুরপাক খান সবায়। সবার মনেই কৌতুহল, তাহলে এতোদিন কেনো শাকিব-অপু তাদের সম্পর্কটির কথা গোপন রেখেছিলে? একবারও কেনো বললেন না তাদের মধ্যে প্রেম, বিয়ে ও সন্তান জন্মের বিষয়টি। গণমাধ্যমে যখন তাদের প্রেম প্রণয় নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল তখন কেনো তারা ‘স্রেফ বন্ধুত্ব’ বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন? আর হঠাৎ এমনকি ঘটলো যে টিভি লাইভে এসে এসব ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে বলতে হলো? শাকিব কি তাহলে কোনো প্রতারণা করেছেন অপুর সঙ্গে? স্ত্রী কিংবা সন্তানকে মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন? না, ঘটনা এমনটিও না। আসলে শাকিব-অপুর মধ্যে চলা সম্পর্ককে হঠাৎ বাজে দিকে নিয়ে গেছে একটিমাত্র ‘স্থিরচিত্র’!

হ্যাঁ। গেল মাসে একটি ‘স্থিরচিত্র’ নিজের ফেসবুকে আপলোড করেছিলেন অপুর পরিবর্তে সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে জায়গা করে নেয়া অভিনেত্রী শবনব বুবলি। নিজের পরিবারের কয়েকজন সদস্যদের মাঝখানে শাকিব খানকে বসা অবস্থায় দেখা যায় সেই ছবিটিতে। সেটাও সমস্যা ছিলো না, কিন্তু বুবলি ছবিটির ক্যাপশনে লিখেন, ‘ফ্যামিলি টাইম’। যা দেখে মারাত্মকভাবে আহত হন অপু বিশ্বাস। এমনিতেই বুবলির প্রতি বিদ্বেষ ছিলো তার, তারউপর নিজের স্বামীকে যখন দেখতে পেলেন সেই নারীটিই নিজের ‘ফ্যামিলি’র অংশ বানিয়ে ফেলেছেন তখন নিজেকে আর ধরে রাখতে পারেননি অপু। তাই তৎক্ষণাৎ ফোন করে বুবলিকে শাসিয়ে দেন। শাকিব খান কি করে বুবলির পরিবারের সদস্য হয়, এ কথা জানতেই বুবলিকে ফোনে গালমন্দও করেছিলেন তিনি।

বুবলির উপর একজন স্ত্রী হিসেবে অপুর এমন আচরণও হয়তো অনাহুত নয়। কারণ গত দশমাস ধরে তিনি অন্তরালে চলে যাওয়ার পর শাকিব দেশের মধ্যে শুধু বুবলির সঙ্গেই সিনেমায় অভিনয় করেছেন। বুবলির সঙ্গে তাই শাকিবের মেলামেশাটা ছিলো দৃশ্যমান, যদিও সেটা সিনেমার বাইরে নয়! এছাড়া কয়েকটি সিনেমায় কলকাতার নায়িকাদের সঙ্গে শাকিব অভিনয় করলেও সেগুলো এতোটা চোখে না পড়ায় হাইলাইট হয়নি। অথবা এটিকে অপু বিশ্বাস প্রফেশনাল জায়গা থেকেই ডিল করেছেন। কিন্তু তার পরিবর্তে সিনেমায় জায়গা করে নেয়া বুবলিকে কোনোভাবে মেনে নিতে পারছিলেন না অপু। তারই যেনো ক্ষেদ মিটাতে ওই স্থিরচিত্রের প্রসঙ্গ ধরে বুবলির সঙ্গে আর কোনো সিনেমায় অভিনয় না করতেও শাকিবকে জানিয়ে দিয়েছিলেন অপু বিশ্বাস।

কিন্তু যে বুবলিকে শাকিবের জন্য অনিরাপত্তায় ভুগেন অপু, সেই বুবলিকেই যখন সদ্য দেখলেন শাকিবের সঙ্গে নতুন আরো একটি সিনেমায়(রংবাজ) চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তখন সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে যায় তার। অপুর মানা করা সত্বেও যখন বুবলির সঙ্গে নতুন ছবি ‘রংবাজ’-এ চুক্তিবদ্ধ হলেন শাকিব, সেদিনই নিজের বিয়ে ও সন্তান গোপন করার বিষয়টি মিডিয়ায় তুলে ধরার সিদ্ধান্ত নেন অপু। কারণ এছাড়া তিনি আর কোনো পথ দেখছিলেন না। আর কিছু ভাববার অবকাশ না পেয়েই তিনি সোমবার বিকেলে সন্তান কোলে হাজির হোন টেলিভিশনের লাইভ অনুষ্ঠানে।

এটা নিশ্চিতভাবেই বলা যায় যে, শাকিব-অপু দুজনে সিদ্ধান্ত নিয়েই তাদের বিয়ে, সম্পর্ক ও সন্তান জন্মের বিষয়টি গোপন রেখে আসছিলেন। কিন্তু একজন নারী হিসেবে, স্ত্রী হিসেবে তার পুরুষটিকে অন্য নারীর সঙ্গে মিশতে দেখার যে ক্ষত সেটাকে এড়িয়ে যেতে পারেননি অপু বিশ্বাস। ফলে বুবলির সঙ্গে শাকিবকে অভিনয় করতে বারবার মানা করেও যখন পারছিলেন না, তখনই এমনভাবে প্রকাশ্য হওয়ার সিদ্ধান্তটি নিলেন।

Top