আজ : বুধবার, ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং | ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

গণপিটুনি শেষে পুলিশে সোপর্দ

সময় : ২:৫৩ অপরাহ্ণ , তারিখ : ২১ মার্চ, ২০১৭


মাহবুব হাসান টুটুল,মেহেরপুর প্রতিনিধি: প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে কাজল হোসেন নামের এক যুবককে আটক করা হয়েছে।পরকীয়া প্রেমের জেরে দুজনকে আপত্তিকর অবস্থায় পাওয়া গেছে বলে

দাবি স্থানীয়দের। পুলিশ দুজনকেই আটক করেছে। ঘটনাটি

ঘটেছে রোববার দিবাগত রাত ১১টার দিকে মেহেরপুর গাংনী

উপজেলার কুলবাড়ীয়া গ্রামে। আটক দুজন হচ্ছে- কুলবাড়িয়া

গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী সোনা মিয়ার স্ত্রী তিন সন্তানের

জননী নীলা খাতুন (৩৫) ও পার্শ্ববর্তী হিন্দা গ্রামের আবু

সিদ্দিকির ছেলে নৌ বাহিনীর ল্যান্স করপোরাল কাজল হোসেন (২৫)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কুলবাড়িয়া গ্রামের সোনা মিয়া

দীর্ঘ সাত বছর সিঙ্গাপুরে রয়েছেন। দাম্পত্য জীবনে তারা তিন

সন্তানের জনক। স্বামী বিদেশে থাকার সুযোগে কাজলের সাথে

অসীম পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন গৃহবধূ নীলা খাতুন। কাজল

বর্তমানে নৌ বাহিনীর ল্যান্স করপোরাল হিসেবে নারায়ণগঞ্জে

কর্মরত। ছুটিতে বাড়ি এলে দুজনের দেখা যেতো একই জায়গায়।

বিষয়টি প্রতিবেশীদের কান ছাপিয়ে গ্রামের মানুষের মাঝেও

সমালোচনা সৃষ্টি হয়। কিন্তু কর্ণপাত করেনি নীলা-কাজল। এবার

ছুটিতে বাড়ি ফিরে আবারও নীলার সাথে দেখা করতে যায়। রোববার

দিবাগত রাত ১১টার দিকে নীলার স্বামীর বাড়ির শয়নকক্ষে দুজন

একসাথে ছিলো। অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে

প্রতিবেশীরা তাদের দুজনকে ওই ঘরে আটকে রাখে। আপত্তিকর

অবস্থায় তাদের আটক করা হয়েছে বলে দাবি করেন তারা। এ সময়

উত্তেজিত গ্রামবাসী তাদের গণধোলাই দেয়। অবৈধ শারীরিক

সর্ম্পকের শাস্তি এবং তাদের বিয়ে দেয়ায় দাবি করেন উত্তোজিত

লোকজন। এ বিষয়ে তারা পুলিশের সহযোগিতা কামনা করেন।

গাংনী থানার ইন্সপেক্টর (ওসি-তদন্ত) কামরুজ্জামান তাদের আটকের

বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, প্রতিবেশীদের বয়ান অনুযায়ী তারা

দুজন শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত ছিলো। অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাদের

আটক করা হয়েছে। দুজনকে গাংনী থানা হাজতে রাখা হয়েছে।

পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। খবর দেয়া

হয়েছে কাজলের কর্মস্থলে। তবে নীলা ও কাজল পরকীয়া প্রেমের

বিষয়টি স্বীকার করেন।

Top