আজ : মঙ্গলবার, ২৩শে মে, ২০১৭ ইং | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

চরম হট্রগোল ও বিশৃঙ্খলার মধ্যদিয়ে…দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন

সময় : ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ১৩ মার্চ, ২০১৭


আনোয়ার হোসেন আনু, কুয়াকাটা॥ কুয়াকাটা পর্যটন ঘেষা ইউনিয়ন লতাচাপলী ইউপি নির্বাচনে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী বাছাইয়ে

চরম উত্তেজনা ও বিশৃঙ্খলার মাঝে আওয়ামীলীগের তৃণমূলের ভোটাভোটি

সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার সকালে অনুষ্ঠিত তৃণমূলের ভোট নেওয়া হয়

লতাচাপলী ইউনিয়ন পরিষদের হলরুমে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভোট গ্রহণের আগে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক

পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মাহবুবুর রহমান এমপির সাথে

পটুয়াখালী জেলা নেতৃবৃন্দের মধ্যে দলীয় প্রার্থী বাছাই প্রক্রিয়া নিয়ে

মতবিরোধ দেখা দেয়। এসময় সংসদ সদস্যের বিপক্ষে উপস্থিত পাঁচ শতাধিক

সমর্থক চিৎকার চেচামেচি শুরু করেন। পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের

সাধারণ সম্পাদক ও পটুয়াখালী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা

খান মোশারফ হোসেনের হস্তক্ষেপে শেষ পর্যন্ত পরিস্থিতি শান্ত হয়। সকাল

১১টার দিকে তৃণমূলের ৬১ জন ভোটার অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে ইউনিয়ন

আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আনছার উদ্দিন মোল্লা ৪৫ ভোট,

ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ডা. সিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাস ১৩ ভোট

এবং অপর একজন তিন ভোট পেয়েছেন।

হট্টগোল বাকবিত-া প্রসঙ্গে পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ

সম্পাদক খান মোশারফ হোসেন বলেন, শুরুতে কলাপাড়া উপজেলা

আওয়ামীলীগের সভাপতির সাথে একটু মতবিরোধ দেখা দিলেও তৃণমূলের

ভোট গ্রহণ ও ফলাফল জানাতে কোন সমস্যা হয়নি।

প্রার্থী মনোনয়ন দিতে ইউনিয়ন তৃণমূল নেতাদের ভোটগ্রহনে

উপস্থিত ছিলেন, পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক মন্ত্রী

আলহাজ্ব এড. মো. শাহজাহান মিয়া, সাধারণ সম্পাদক খান মোশারফ

হোসেন, কলাপাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী

আলহাজ্ব মাহবুবুর রহমান এমপি, সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা এসএম

রাকিবুল আহসান, কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল

মোতালেব তালুকদার, পটুয়াখালী পৌর মেয়র ডা. শফিকুল ইসলাম, কলাপাড়া

পৌর মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদার, কুয়াকাটা পৌর মেয়র আঃ বারেক

মোল্লাসহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ এবং এর অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

আগামি ১৬ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কলাপাড়া উপজেলার লতাচাপলী

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। ২০ মার্চ এ মনোনয়নপত্র দাখিলের দিন ধার্য

করেছে নির্বাচন কমিশন। লতাচাপলীর একটি অংশ নিয়ে কুয়াকাটা

পৌরসভা গঠন হওয়ায় সীমানা নির্ধারনের জটিলতায় দীর্ঘদিন নির্বাচন

বন্ধ ছিল। এদিকে, তৃণমূলের সমর্থন আদায় করতে অর্থকড়ি ঢালাঢালি

ছাড়াও প্রভাব-প্রতিপত্তি খাটানোর একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ

তুলেছেন। এ ইউনিয়নের সাধারণ নির্বাচন হয়েছিল ২০০৩ সালের ২ মার্চ।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সৈয়দ আবু বকর সিদ্দিক জানান, নির্বাচন

সুষ্ঠু এবং সঠিকভাবে সম্পন্নের লক্ষ্যে সকল প্রস্তুতি চলছে।

Top