আজ : শনিবার, ২১শে জুলাই, ২০১৭ ইং | ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের; দুই পক্ষের সংর্ঘর্ষে আহত ১০

সময় : ৭:০১ অপরাহ্ণ , তারিখ : ২০ মে, ২০১৭


পিরোজপুর ব্যুরোঃআজ শনিবার সকালে পিরোজপুরের ভা-ারিয়া উপজেলার ৫নং ধাওয়া

ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের খলিল আকন ও রুহুল আকন গংদের সম্মুখ সংঘর্ষে উভয়

পক্ষের ১০জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন, রুহুল আমীন (৪৪),তার ভাই চান মিয়া

আকন (৩৯), সাকায়েত হোসেন (৬০)হায়দার (৩০),রুমী বেগম (৪৫),শাহানাজ

বেগম (৩৫),খলিল আকন (৬০), সোহরাব হোসেন (৬০),রুবী বেগম (২৮) ও কুমেলা

বেগম (৫০)। এর মধ্যে রুহুল আমীন ও তার ভাই চান মিয়া আকন কে পিরোজপুর সদর

হাসপাতালে এবং সাকায়েত হোসেন,হায়দার , রুমী বেগম ,শাহানাজ বেগম ,খলিল

আকন , রুবী বেগম কে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে ও সোহরাব

হোসেন , কুমেলা বেগম ভা-ারিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে হাসপাতাল

সূত্রে জানাগেছে। আহতদের মধ্যে রুহুল আমীন সেনা সদস্য বলে জানাগেছে।

স্থানীয়সুত্রে জানাগেছে, খলিল আকন ও রুহুল আমীন আকন গংদের সাথে

দীর্ঘদিন জমিসংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে।ওই বিরোধীয় জমির বাগান বাড়ির

গাছ রুহুলগং বিক্রি করলে তাতে খলিলগং বিক্রিতে বাধা দেয়ায় উভয় পক্ষের বাক

বিতন্ডার এক পর্যায়ে সংর্ঘর্ষে উভয় পক্ষের ১০ জন গুরুতর জখম হয়েছে। এ

বিরোধকে কেন্দ্র করে আদালতে একাধিক মামলা চলমান রয়েছে। সম্প্রতি মৃত

তফছের উদ্দিন আকনের ছেলে চাঁন মিয়া ও তার ভাই রুহুল আমিন বিরোধীয়

বাগানের বিভিন্ন প্রজাতির ১২৬ গাছ আড়াই লাখ টাকায় বিক্রি করেন। গাছ

বিক্রির পর বাদি সাকায়েত আকন আদালত থেকে গাছ বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি

করান। প্রতিপক্ষ চাঁনমিয়া ও রুহুল আমিন আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে আজ

শনিবার সে গাছ বাগান থেকে নামিয়ে নেয়ার সময় খলিল আকন গ্রুপ তাদের

বাধা দিলে চাঁনমিয়া ও রুহুল আমিন লোকজন নিয়ে তাদের ওপর ধারালো অস্ত্র ও

লাঠি সোটা দিয়ে হামলা চালায়। হামলার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ওই ইউনিয়ন

পরিষদ চেয়ারম্যান মো.ছিদ্দিকুর রহমান টুলু বলেন এ দুই গ্রুপের মধ্যে

জমিনিয়ে বিরোধ দীর্ঘ দিনের। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন পক্ষের কোন

অভিযোগ পাওয়া যায়নি বলে জানান ভা-ারিয়া থানার ওসি তদন্ত সেখ আউয়াল

কবির ।

Top