আজ : শুক্রবার, ২৩শে জুন, ২০১৭ ইং | ৯ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

জেনে নিন, মেয়েদের কিছু গোপন সত্যগুলো !

সময় : ৭:৩৪ অপরাহ্ণ , তারিখ : ১১ এপ্রিল, ২০১৭


নিউজ ডেস্কঃ একজন ছেলের পক্ষে তার সঙ্গিনী কী চিন্তা করেন এবং কী ভাবেন তা খুঁজে বের করা অনেক বেশি কঠিন। ছেলেরা কিছুতেই বুঝতে পারেন না আসলে তার সঙ্গিনী কী বলতে চাইছেন। মেয়েরা অনেক বেশি মাত্রায় আবেগী হয়।
যার কারণে মেয়েরা অনেক কিছুই আচরণ প্রকাশ করতে চান, মুখে বলতে পছন্দ করেন না। কিন্তু ছেলেরা ঠিক এর উল্টোটা। ছেলেরা সব কথা মুখে বলতেই পছন্দ করেন এবং শুনতেও পছন্দ করেন। কিন্তু কি-ই বা করার আছে। এই কারণেই ছেলে ও মেয়ে সম্পূর্ণ আলাদা।
সমস্যা হলো মনের অজানা কথা বুঝতে না পারার কারণে মেয়েরা বেশিরভাগ সময় ছেলেদের উপর অভিমান করে থাকেন। এতে করে ঝামেলায় পড়েন ছেলেরা। তাই মেয়েদের মানসিকতা এবং মনোভাব সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে রাখা উচিৎ সকল ছেলেরই। এতে করে তার সঙ্গিনীকে বুঝতে বেশ সুবিধা হবে। এবং সঙ্গিনীও অভিমান কম করেই করবেন। চলুন তবে জেনে নেয়া যান মেয়েদের সম্পর্কে এমনই কিছু অজানা তথ্য।
তথ্য-১
মেয়েরা ভালোবাসা প্রকাশ করাটা অনেক বেশি পছন্দ করে থাকেন। আপনি অনেক চাপা বা লাজুক স্বভাবের হলেও নিজের ভালোবাসা প্রকাশ করুন। সেটা যেভাবেই হোক। প্রশংসা করুন, উপহার দিন কিংবা সরাসরি তাকে বলুন আপনি তাকে কতোটা ভালোবাসেন।
তথ্য-২
অনেক সময়েই মেয়েদের অভিমান পুরোটাই থাকে অভিনয়। মেয়েরা মাঝে মাঝে অভিমানের অভিনয় করে তার প্রেমিক বা স্বামীর পরীক্ষা নিয়ে থাকেন। তারা দেখতে চান তার অভিমানের মূল্য তার প্রেমিক বা স্বামীর কাছে কতোটুকু। তাই আপনি যদি নিজের সঙ্গিনীর অভিমানকে অবহেলা করতে চান তবে ভুল করবেন।
তথ্য-৩
আপনার সঙ্গিনী যদি আপনার মুখে অন্য কোনো মেয়ের নাম শুনে বিরক্ত বোধ করেন এবং কথা ঘুরানোর চেষ্টা করেন তবে অবশ্যই আপনি সেই নামটি আর মুখে আনবেন না। কারণ বেশিরভাগ মেয়েরাই নিজের পছন্দের মানুষটির মুখ থেকে নিজের নামটি ছাড়া দ্বিতীয় কোনো মেয়ের নাম শুনতে চান না একেবারেই।

তথ্য-৪
মেয়েরা গিফট খুব বেশি পছন্দ করে থাকেন। যদি কোনোভাবেই নিজের সঙ্গিনীর অভিমান ভাঙাতে না পারেন তবে তাকে গিফট করুন তার পছন্দের কোনো জিনিস। দেখবেন অভিমান খুব বেশিক্ষন ধরে রাখতে পারবেন না তিনি।
তথ্য-৫
আপনার সঙ্গিনী যদি আপনাকে ফোন দিয়ে সবসময় আপনার খোঁজ খবর নেয়ার জন্য উদগ্রীব থাকেন এবং আপনি ফোন না ধরলে মন খারাপ করেন তখন বুঝে নেবেন তিনি আপনাকে অনেক বেশিই ভালোবাসেন। এখন কথা হলো সন্দেহের জন্য খোঁজ নেয়া এবং কেয়ার করার জন্য খোঁজ নেয়া নিয়ে। যদি আপনার সঙ্গিনী সন্দেহ করেন আপনার প্রতি তাহলে তার কথার তীরের মাধ্যমেই আপনি তা বুঝতে পারবেন। আর যদি তার খোঁজ খবর নেয়ার পেছনে শুধুই কেয়ার থাকে তাহলে কথায় কোনই সন্দেহের লেশ পাবেন না। তাই এই খোঁজ খবর নেয়ার অর্থটাকে সব সময় আঠার মতো লেগে থাকা নামটি দেবেন না।

তথ্য-৬
আপনারা কথা বলার মাঝে আপনার কোনো কথার প্রেক্ষিতে যদি আপনার সঙ্গিনী আপনাকে বলেন, ‘কি বললে বুঝতে পারিনি, আবার বলো’, তাহলে তা ভুলেও দ্বিতীয়বার বলতে যাবেন না।
এই কথার অর্থ হচ্ছে তিনি আপনার কথা শুনেছেন এবং বুঝেছেন কিন্তু তার কথাটি পছন্দ হয়নি। তিনি আপনাকে আবার বলো বলতে বুঝাচ্ছেন কথাটি ঠিক করে নিন

Top