আজ : রবিবার, ২৩শে জুলাই, ২০১৭ ইং | ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

ঢাবিতে জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবসের মহড়া

সময় : ১০:৪৩ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ০৯ মার্চ, ২০১৭


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস উপলক্ষে অগ্নি নির্বাপণ ও ভূমিকম্প পরবর্তী উদ্ধার কার্যক্রমের মহড়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন এলাকায় এ মহড়া অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় কলা ভবনের ছাদ থেকে প্রতীকী হিসেবে অগ্নিকাণ্ডে কয়েকজনকে উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে নেয়ার মহড়া দেয়া হয়।

ঢাবি উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আবু মো. দেলোয়ার হোসেন বক্তব্য দেন।

মোফাজ্জল হোসেন বলেন, বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ। অনেক মানুষ আবহাওয়ার অবস্থা বোঝার জন্য আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকে। এখন শুধু ১০৯০ নম্বরে ডায়াল করেই সারা দেশের আবহাওয়ার বার্তা জানা যাবে। দুর্যোগ ও ভূমিকম্প মোকাবেলায় এসব মহড়া দেখে আমাদের উপলব্দি ও শিক্ষা নিতে হবে। ১০৯০ এ নম্বরে ডায়াল করে বাংলাদেশ সরকারের বিনা পয়সায় আবহাওয়া বার্তা সবাইকে শোনার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে অগ্নিকাণ্ড হয় মানবসৃষ্ট কারণে। বাসায় গ্যাসের চুলা জ্বালিয়ে অনেকে কাপড় শুকায়। যার কারণে দুর্ঘটনা ঘটে। সবাই যদি এসব ক্ষেত্রে সচেতন হয় তাহলে এসব দুর্যোগের ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পেতে পারি আমরা।

অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভবনগুলো অনেক পুরাতন। ভবনগুলোর অবকাঠামো ভূমিকম্প প্রতিরোধ করার মতো নয়। এ মহড়ার মাধ্যমে আমাদের ভূমিকম্পসহ যেকোনো দুর্যোগ মোকাবেলা করার প্রস্তুতি নিয়ে থাকতে হবে সারাক্ষণ।

Top