আজ : সোমবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

‘নির্বাচনী’ ঈদ এলাকায় পালন করবেন আ’লীগ নেতারা,,

সময় : ১১:৫২ অপরাহ্ণ , তারিখ : ২৫ জুন, ২০১৭


আপডেট নিউজ পেতে পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে জনসম্পৃক্ততা বাড়াতে এবারের ঈদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের অধিকাংশ নেতাই নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় ঈদ করবেন। এছাড়া বেশ কিছুদিন ধরেই নির্বাচনী এলাকায় ব্যস্ত হতে নেতাদের প্রতি আওয়ামী লীগের হাইকমান্ডের নির্দেশ রয়েছে। ফলে দলের নির্দেশ অনুসরণ ও তৃণমূলের নেতাকর্মী, ভোটারদের সাথে সম্পৃক্ত হতে এবারের ঈদকে বেছে নিয়েছেন দলটির বিভিন্ন শ্রেণীর নেতারা।
আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা ইতোমধ্যে ঈদ করতে এলাকায় চলে গেছেন। আবার অনেকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করে নির্বাচনী এলাকায় যাবেন। যারা ঈদের দিন ঢাকায় থাকবেন, তারাও পরে এলাকায় যাবেন। ঈদের ‘ছুটিতে’ নেতারা এলাকায় বিভিন্ন ধরণের সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক কর্মসূচীতে অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন।
আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবারও পরিবার নিয়ে সরকারি বাসভবন গণভবনে ঈদ করবেন। ঈদের দিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত দলের নেতা, মন্ত্রী, শিক্ষক, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। এছাড়া সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বিচারপতি ও কূটনীতিকদের সাথে তিনি গণভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।
জানা গেছে, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সকালে নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালীর কোম্পানিগঞ্জে ঈদের নামাজ পড়ে বিকালে ঢাকায় ফিরবেন।
আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের মধ্যে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সিলেটে, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু ঝালকাঠি ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ভোলায়, সাবেক মন্ত্রী রাজিউদ্দীন আহমেদ রাজু নরসিংদীতে নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় ঈদ করবেন।
আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্যদের মধ্যে সংসদ উপনেতা সাজেদা চৌধুরী, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী কর্নেল (অব.) ফারুক খান, ড. আবদুর রাজ্জাক ঢাকায় ঈদ করবেন।
এছাড়া সভাপতিমন্ডলীর অন্য সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের নির্বাচনী এলাকাও ঢাকা। সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সিলেটে, কাজী জাফরউল্লাহ ফরিদপুরের ভাঙ্গায় নিজ এলাকায় ঈদ করবেন।
অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, নিজের নির্বাচনী এলাকার নেতাকর্মীদের সাথে ঈদ কাটাবো।
অন্যদিকে কাজী জাফরউল্লাহ রোববার বলেন, এলাকায় ঈদ করবো, আজ ঈদের আগের দিন নানা ব্যস্ততায় কাটছে।
এছাড়া সভাপতিমন্ডলীর সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম গণভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে ঈদের দিন ঢাকাতেই থাকবেন, পরের দিন নির্বাচনী এলাকা সিরাজগঞ্জ যাবেন।
মন্ত্রীদের মধ্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন ঈদ করতে ইতোমধ্যে ফরিদপুরে অবস্থান করছেন।
এছাড়া গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন চট্টগ্রামে, প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি চট্টগ্রাম, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর নীলফামারী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ঢাকা, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক গাজীপুর, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া চাঁদপুর, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ঢাকা, পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল কুমিল্লা, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী মির্জা আজম জামালপুর, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম রাজশাহী, পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলাম হিরু নরসিংদী, তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক নাটোরে নিজ নিজ এলাকায় ঈদ করবেন।
এছাড়া বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু সকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে নির্বাচনী এলাকা কেরানীগঞ্জে যাবেন।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকদের মধ্যে মাহবুব-উল আলম হানিফ ঢাকায় ঈদ করবেন। আর জাহাঙ্গীর কবীর নানক ঢাকা ও আবদুর রহমান ফরিদপুরের মধুখালীতে নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় ঈদ করবেন।
আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি সকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করে বিকালে নির্বাচনী এলাকা চাঁদপুরে যাবেন।
দলের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন বলেন, নিজ এলাকা নেত্রকোণার পূর্বধলায় ঈদ করবো। এলাকার মানুষদের সাথে এই ধর্মীয় উৎসবটি উদযাপন করবো।
আওয়ামী লীগের অন্য সাংগঠনিক সম্পাদকদের মধ্যে মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ সিলেট, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম মাদারীপুর, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন জয়পুরহাট, বিএম মোজাম্মেল শরীয়তপুর, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী দিনাজপুর, মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল চট্টগ্রামে নিজ নিজ এলাকায় ঈদ করবেন।
দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, জনপ্রতিনিধি হিসেবে সকল উৎসবে আমার এলাকার জনগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং থাকবো।
এছাড়া প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ চট্টগ্রাম, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ মাদারীপুর, শ্রম সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ মাদারীপুরে, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ঢাকায় ঈদ করবেন।
কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী সকালে প্রধানমন্ত্রীর সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করে বিকালে নিজ এলাকা নোয়াখালী যাবেন।
তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন পটুয়াখালীতে ঈদ করবেন জানিয়ে বলেন, এলাকার মানুষ আমাকে ভালবাসে, তারা আমাকে চায়; আমি তাদের সাথেই ঈদ করবো।
অন্যদিকে সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল ও তার স্ত্রী যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপিকা অপু উকিল ঈদের দিন সকালে গণভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় করে নিজ এলাকা নেত্রকোনায় যাবেন। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস ঈদের দিন মুন্সীগঞ্জে থাকবেন।
ত্রাণ ও সমাজকল্যাণবিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী এখন চাঁদপুরে রয়েছেন, ঈদের দিন সকালে গণভবনে এসে শুভেচ্ছা বিনিময় করে আবার চাঁদপুর চলে যাবেন।
দলের উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায়, উপ দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া এবং আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম রহমতুল্লাহ ঢাকায় ঈদ করবেন।
নরসিংদীর রায়পুরায় ঈদ করবেন জানিয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য অ্যাডভোকেট রিয়াজুল কবীর কাউসার ঈদ এলাকায়ই করবো, রমজানেও এলাকায় গেছি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে।

আপডেট নিউজ পেতে পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

Top