আজ : রবিবার, ২৪শে জুন, ২০১৭ ইং | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

পরিবার পরিকল্পনার গুদামে আগুন, ৩টি তদন্ত কমিটি

সময় : ৬:০৮ অপরাহ্ণ , তারিখ : ০৯ এপ্রিল, ২০১৭


রাজধানীর মহাখালীতে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের কেন্দ্রীয় গুদামে আগুন লাগার ঘটনা তদন্তে পৃথক তিনটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় ও পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতর পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। এছাড়া ক্ষয়ক্ষতি পরিমাণ জানতে আরেকটি ইনভেনটরি কমিটি গঠন করেছে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতর।

রবিবার দুপুর ২টার দিকে কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পরিবার পরিকল্পনার অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) কাজী মোস্তফা সরওয়ার।

তিনি বলেন, পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের কেন্দ্রীয় গুদামে আগুন লাগার কারণ জানতে অধিদফতরের পক্ষ থেকে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। অধিদফতরের তথ্য মূল্যায়ন বিভাগের (আইইএম) পরিচালক ফেরদৌস আলমকে প্রধান করে এ কমিটি করা হয়েছে।

অন্যদিকে, একই ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানতে অধিদফতরের পরিচালক (মা ও শিশু স্বাস্থ্য) ডা. মো. শরীফকে প্রধান করে একটি ইনভেনটরি কমিটি গঠন করা হয়েছে। উভয় কমিটিকে আগামী পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

এদিকে, পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব আব্দুল মালেককে কমিটির প্রধান করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

পরিবার পরিকল্পনার অধিদফতরের ডিজি কাজী মোস্তফা সরওয়ার বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে। তবে এটি নাশকতা কি না তা খতিয়ে দেখতে দুটি কমিটি তদন্ত করবে।

শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর মহাখালীতে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের টিনশেডের ওই কেন্দ্রীয় গুদামে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১৪টি ইউনিট দীর্ঘ আড়াই ঘণ্টা চেষ্টার চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কন্ট্রোল রুমের ডিউটি অফিসার পলাশ চন্দ্র মোদক জানান, ২৭০ ফুট দৈর্ঘ্যের গুদামটিতে অনেক ওষুধ ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র রয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এখন ডাম্পিং ও কুলিংয়ের কাজ করছেন। এরপর ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ করা হবে। অগ্নিকাণ্ডে কেউ হতাহত হয়নি।

এদিকে, ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকেও একটি কমিটি গঠন করা হবে বলে জানা গেছে।

Top