আজ : সোমবার, ৩০শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং | ১৮ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

ফুল তাজা রাখার ঘরোয়া টোটকা

সময় : ১০:২৯ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ০৯ মার্চ, ২০১৭


ফুলের যত্নে আহামরি কোনো আয়োজনের দরকার নেই। হাতের কাছে থাকা বিভিন্ন জিনিস দিয়েই ঘরের ফুলগুলো সতেজ ও সুবাসিত করে রাখা সম্ভব দীর্ঘসময়। জেনে নেয়া যাক ফুলদানির ফুলের আয়ু বৃদ্ধিতে সহায়ক কিছু টিপস:

পরিষ্কার পানি: পুরনো পানিতে ব্যাকটেরিয়া বেশি জন্মায় বলে ফুলদানির পানি পরিবর্তন আবশ্যক। তাছাড়া তাজা ফুলের উত্তম খাবার হলো পরিষ্কার পানি। প্রতিদিন যদি দুবার করে ফুলদানির পানি বদলানো যায়, তাহলে ফুল অনেক বেশি সময় সতেজ থাকবে।

স্প্রে: গাছ থেকে ছেঁড়ার পর দীর্ঘ সময় ফুলে পানি না দিলে সেটি নেতিয়ে কিংবা শুকিয়ে যায়। এছাড়া ধুলাবালি পড়েও ফুলের স্বাভাবিক সৌন্দর্য বিনষ্ট হয়। সেজন্য প্রতিদিন রাতে ফুলের ওপর স্প্রে করুন। এতে ফুলগুলো সতেজ থাকবে।

সোডা: দীর্ঘ সময় ফুল টাটকা ও সতেজ রাখতে সোডার জুড়ি মেলা ভার। শুধু তা-ই নয়, ফুলের সুবাস ছড়িয়ে দিতেও সোডার ভূমিকা আছে। এজন্য ফুলদানির ভেতর ২ টেবিল চামচ পরিমাণ সোডা মিশিয়ে দিন। ব্যস! কিছু সময় পরই ফল পাওয়া শুরু হবে।

অ্যাপল সিডার ভিনেগার: ২ টেবিল চামচ চিনি ও একই পরিমাণ অ্যাপল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে ফুলদানির ভেতর দিন। তাহলে ফুল অনেক সময় সতেজ থাকবে। চিনি: দীর্ঘ সময় ধরে ফুল সতেজ রাখতে চিনির ভূমিকা অনেক বেশি। তবে বেশি দিন ধরে এ পানি রাখলে ব্যাকটেরিয়া জমতে পারে।

অ্যাসপিরিন: ফুল সতেজ আর প্রাণবন্ত রাখতে অ্যাসপিরিনও ব্যবহার করতে পারেন। এতে পাঁচদিন ধরে ফুল ভালো রাখা সম্ভব।

ব্লিচ: ব্লিচ ফুল সতেজ রাখতে সহায়তা করে। এজন্য পানিতে এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ ব্লিচ মিশিয়ে ফুল ভিজিয়ে রাখুন।

মাউথ ওয়াশ: এখন বেশির ভাগ বাড়িতেই মাউথ ওয়াশ থাকে। ফুলদানির পানিতে এক কাপ পরিমাণ মাউথ ওয়াশ মিশিয়ে দিলে ফুল এক সপ্তাহ পর্যন্ত সতেজ থাকে এবং ফুলের কলিগুলো তিন থেকে চারদিন পর ফুটতে শুরু করবে।

ভিনেগার: ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে ভিনেগারের তুলনা নেই। ফুলদানিতে ভিনেগার মেশালে ফুলের জন্য ব্যাকটেরিয়াগুলো মরে যায়। ফলে ফুল দীর্ঘদিন সতেজ থাকে। এজন্য ফুলদানির পানিতে এক চা চামচ পরিমাণ ভিনেগার মিশিয়ে নিতে পারেন।

Top