আজ : বৃহস্পতিবার, ২৩শে আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৯ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

ফ্রান্সে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা

সময় : ২:৫৮ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ২২ মার্চ, ২০১৭


সম্প্রতি ফ্রান্সে বসবাসরত বাংলাদেশি অভিবাসী নির্যাতন, হামলা ও ছিনতাইসহ নানা ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে উদ্বেগ উৎকণ্ঠা আর আতঙ্কে রয়েছে বাংলাদেশি কমিউনিটি।
শনিবার ফ্রান্সে বাংলাদেশি কমিউনিটির পরিচিত মুখ অল ইউরোপীয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের (আয়েবা) মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্লাহ ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আমন্ত্রণে ফরাসী ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ এবং এমন পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে মতবিনিময় করেন। দীর্ঘ দুই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে বিস্তারিত আলাপ আলোচনার সময় কাজী এনায়েত উল্লাহ সামগ্রিক পরিস্থিতি তুলে ধরে বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশি অভিবাসীরা অত্যন্ত শান্তিপ্রিয়। ফরাসী আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সক্রিয় দায়িত্ব পালনেও আমরা আস্থাশীল। তবে বেশ কিছু ঘটনা আমাদের উদ্বিগ্ন করেছে।’
এ সময় ফরাসী কর্মকর্তারা বলেন, আমরা সব বিষয়ে অবহিত। শুধু বাংলাদেশি অভিবাসী নয়; গত এক মাসে ৯৩ ও ৯৫ ডিপার্টমেন্টে সাড়ে চারশরও বেশি আগ্রাসী কার্যকলাপের পরিসংখ্যান আমাদের হাতে রয়েছে। এ ঘটনাগুলো তদন্তাধীন। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এগুলো ব্যক্তিগত, সামাজিক ও পারিবারিক কলহের পরিপ্রেক্ষিতে সংগঠিত হয়ে থাকে। তবে বাংলাদেশিদের ক্ষেত্রে এমন ঘটনা সেই তুলনায় সীমিত।
আয়েবা মহাসচিব বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে আমাদের কমিউনিটির মাঝে আরো সচেতনতা প্রয়োজন। ভুলে গেলে চলবে না ফ্রান্সজুড়ে সন্ত্রাসী তৎপরতায় জরুরি অবস্থা বিরাজমান। পাশাপাশি সামনে ফরাসী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে ঘিরে সরগম পুরো ফ্রান্স। চলছে নির্বাচনী প্রচারণা, অভিবাসী বিরোধী বর্ণবাদী দলগুলো অত্যন্ত তৎপর এবং সবচেয়ে বড় বর্ণবাদী দল ন্যাশানাল ফ্রন্ট পরিসংখ্যানে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে রয়েছে। এমতাবস্তায় আমাদের ধৈর্য এবং সহনশীলতা প্রয়োজন। যথাসম্ভব কোনো ধরনের উসকানি ও বিদ্বেষমূলক কার্যকলাপ থেকে আমাদের দূরে থাকা প্রয়োজন। এ দেশে আমাদের সাবির্ক অস্তিত্বের প্রশ্নে বিশেষ সতর্কতার সঙ্গে ফরাসী প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সহযোগিতা করতে হবে।’
ফ্রান্সে প্রবাসী বাংলাদেশিদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমাদের কমিউনিটির যারা এ ধরনের আক্রমণের শিকার হয়েছেন তাদের প্রতি যেন সবার সহযোগিতা ও সহমর্মিতা অব্যাহত থাকে।’
কর্মকর্তারা মহাসচিবকে আশ্বস্ত করে বলেন, ‘দোষীদের আইনের আওতায় এনে দ্রুত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।’
গত বছরের ২৭ জুন আয়েবার একটি প্রতিনিধি দল ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত বাংলাদেশি কমিউনিটির স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে আলাপ আলোচনা করে।

Top