আজ : রবিবার, ২৩শে জুলাই, ২০১৭ ইং | ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বরিশালে থানা থেকে আসামির পলায়ন : সেন্ট্রি ক্লোজ

সময় : ১০:০০ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ১১ মার্চ, ২০১৭


বরিশাল কোতয়ালি মডেল থানা থেকে মোটরসাইকেল চুরি মামলার এক আসামি পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় বৃহস্পতিবার এক সেন্ট্রিকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে। এর আগে বুধবার দিবাগত রাতে থানা থেকে সোহেল নামের ওই আসামি পালিয়ে যায়। তার বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলায়।

পুলিশের একাধিক সূত্র জানায়, নগরীর রূপাতলী এলাকা থেকে রশিদ ও সোহেল নামে দুই যুবককে আটক করে পুলিশ। আটকের পর তারা পুলিশকে মোটরসাইকেল চোর চক্রের সদস্য বলে জানায়। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে পুলিশ। বুধবার তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়।

এরপর নগরীর একাধিক স্থান থেকে মোটরসাইকেল চুরির সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন রশিদ। পরে সোহেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে এসে অভ্যর্থনা কক্ষে রাখা হয়।

বুধবার দিবাগত রাতের কোনো এক সময় সুযোগ বুঝে জানালার গ্রিল কেটে সোহেল থানা থেকে পালিয়ে যায়। সকাল বেলা আসামি পালানোর ঘটনা জানাজানি হলে রাতে দায়িত্বরত সেন্ট্রি শফিককে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, পলাতক সোহেল ও রশিদসহ একটি চক্র নগরীতে অবস্থান করে মোটরসাইকেল চুরি করে আসছিল। সোহেলের বাড়ি নারায়ণগঞ্জে ও রশিদের বাড়ি চট্টগ্রামে। কয়েকদিন আগে এই চক্রটি বরিশাল নগরীতে অবস্থান নেয়। এরপর বিভিন্ন স্থান থেকে মোটরসাইকেল চুরি করে।

পুলিশের অপর একটি সূত্র জানায়, বুধবার থানা হাজতে আসামি ঠাসা ছিল। স্থান সংকুলান না হওয়ায় সোহেলকে অভ্যর্থনা কক্ষে রাখা হয়। রাতের কোনো এক সময় সুযোগ বুঝে সোহেল পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় দায়িত্বরত সেন্ট্রি শফিককে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে।

বরিশাল কোতয়ালি মডেল থানার সহকারী কমিশনার (এসি) মো. আসাদুজ্জামান জানান, দায়িত্বে অবহেলার কারণে এক পুলিশ সদস্যকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে। অন্যদিকে পলাতক সোহেলকে গ্রেফতারে নগরীসহ বিভিন্ন এলাকায় একাধিক টিম অভিযান চালাচ্ছে।

Top