আজ : সোমবার, ২৯শে মে, ২০১৭ ইং | ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সিনিয়র জুনিয়র নিয়ে দন্দ্ব আহত ১

সময় : ৫:৩৯ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ১৪ মার্চ, ২০১৭


স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সিনিয়রের ফেইসবুক টাইমলাইনে জুনিয়রের স্টাটাস দেওয়াকে কেন্দ্র করে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। তবে এতে উভয় পরে কেউই আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেনি। তবে এক অটোরিক্সা ড্রাইভারকে মারধরের করে ছাত্রলীগ কর্মীরা. পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। গতকাল সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে ক্যাম্পাসের জিরো পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয় গ্রুপের কেউই আহত হয়নি। তবে এক অটো ড্রাইভার কে বেধড়ক মারধর করে ছাত্রলীগ এর কর্মীরা.অটো ড্রাইভারকে গুরুতর আহত অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে। সাংবাদিকরা অটো ড্রাইভারকে অহেতুক মারধরের ঘটনার ছবি দুলতে গেলে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্ঠা করে এবং প্তি হয়। সাংবাদিকদের উপর প্তি হয়ে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ নিরব ভুমিকা পালন করে। প্রত্যদর্শী ও আহত সূত্রে জানাগেছে, ছাত্রলীগ কর্মী অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্র রাজিব ও তার সহচরীদের সাথে গণিত বিভাগের ১ম বর্ষেল ছাত্র তানভীর ও প্রীতম এর সঙ্গে দীর্ঘদিন দ্বন্ধ ছিল। এর জেরে ছাত্রলীগ কর্মী রাজিব আজ দুপুর ১টা থেকে তার সহচরদের নিয়ে কলেজের জিরো পয়েন্টে অবস্থান নেন। এসময় ছাত্রলীগ কর্মী তানভীর ও তার অনুসারীরা জিরো পয়েন্টের দিকে আসলে ধাওয়া করে রাজিব বাহিনী.এতে তানভীর ও তার গ্রুপের ছাত্রলীগ এর কর্মীরা পালিয়ে যায়. ধাওয়ার পর পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ বিষয়ে ছাত্রলীগ কর্মী তানভীর জানান, অতর্কিতভাবে হীরা ধারালো অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে আমাদের ওপর হামলা চালানোর চেস্টা করে। পরে প্রাণ বাঁচাতে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে তারা আমাদের না পেয়ে আমরা যে অটো ড্রাইভার কে নিয়ে পালিয়ে যাই সেই অটো ড্রাইভার কে বেধড়ক মারধর করে। তবে ছাত্রলীগ কর্মী অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্র সুমন জানান, সিনিয়র জুনিয়র বিষয় নিয়ে একটু ঝামেলা হয়েছে। তবে তারা কাউকে মারধর বা ক্যাম্পাসে কোনো অস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করেননি। কলেজের অধ্য জানান, ছাত্রদের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। আহতদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বরিশাল মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মোস্তফা জানান , ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

Top