আজ : রবিবার, ২৪শে জুন, ২০১৭ ইং | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে এসে আমি খুব হ্যাপি

সময় : ৫:৩৬ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ১১ মার্চ, ২০১৭


বিনোদন প্রতিবেদক: বাংলাদেশের মানুষ এতো আন্তরিক এদেশে না এলে তো জানতামই না। মনেই হচ্ছে না আমি অন্য কোনো দেশে চলে এসেছি। এখানে এতো মানুষজন সব যেন আমার স্বজন, আমার কাছে এমনটাই মনে হচ্ছে। খুব এনজয় করছি এখানে। কথাগুলো বলছিলেন, ‘গাদ্দার’ ছবিতে অভিনয় করতে ঢাকায় আসা কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋত্বিকা সেন। গতকাল বিকেল ৫টায় তিনি শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

গতকাল উত্তরায় ছিলেন এই অভিনেত্রী। আর আজকেই শুটিং-এ অংশ নিয়েছেন। ডিসেম্বরে ভারতে এ ছবির মহরত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ছবিটি যৌথভাবে পরিচালনা করছেন বাংলাদেশের ভেনাস মাল্টিমিডিয়া ও ভারতের ভিশন এন্টারটেইনমেন্ট। বাংলাদেশ থেকে ছবিটি পরিচালনা করবেন কামাল মো. কিবরিয়া লিপু এবং ভারতের নেহাল দত্ত। ‘গাদ্দার’ ছবির আগে অভিনেত্রী ঋত্বিকা সেন ভারতে বেশকিছু ছবিতে কাজ করেছেন। বিশেষ করে দেবের বিপরীতে ‘আরশিনগর’ ছবিতে অভিনয় করে ওপার বাংলায় বেশ জনপ্রিয়তা পান তিনি।

শুটিং-এর বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন, শুটিং-এ একদিনেই অনেক মজার অভিজ্ঞতা হয়ে গেল। এই যে আপনি ফোন দিয়েছেন আর ইলিশ মাছ দিয়ে ভাত খাচ্ছি। বাংলাদেশের ইলিশের কথা এতো শুনেছি। আজ নিজের মুখেই এর স্বাদ পেলাম। শুটিং-এর ফাঁকে অনেক কঝাবার আয়োজন। শুটিং ইউনিটটা আমার কাছে পুরো কমফোর্ট জোন মনে হচ্ছে। আমি খুব হ্যাপি। ভালো লাগছে।

বাংলাদেশে তো প্রথম এলেন। সবকিছুই নতুন তাই না? ঋত্বিকা সেন বলেন, আসলে আমার কাছে নতুন মনে হবার কারণ নেই। এই দেশের মানুষের সাথে আমি এদেশে কাজ না করলেও কলকাতায় অনেক করেছি। আমি এদেশের মানুষের সাইকোলজি জানি। আর সবচেয়ে বড় কথা এদেশে তো আমার আত্মীয়ও রয়েছে। একটু আগেই আমার এক দাদা এসে দেখা করে গেলেন। দাদা ঢাকায় থাকেন, ঢাকার মানুষ। বাংলাদেশে আমি জন্মিনি ঠিক কিন্তু কোথা থেকে যেন একটা টান চলে আসে।

ঋত্বিকা সেনের বিপরীতে গাদ্দার ছবিতে নায়ক হিসেবে দেখা যাবে বাংলাদেশের অভিনেতা শ্রাবণ খান। ঋত্বিকা সেন শ্রাবণ খান সম্পর্কে বলেন, সে শুধু আমার কো-আর্টিস্ট নয়, সে আমার ভালো বন্ধু। গতকাল থেকে তার সাথে আমার খুনসুঁটি লেগেই আছে।সেও অনেক মজার মানুষ। তাঁর সাথে অনেক আগেই পরিচয়। আশাকরছি স্ক্রিনে আমাদের রসায়ন ভালো হবে

Top