আজ : শুক্রবার, ২৩শে জুন, ২০১৭ ইং | ৯ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বিএনপি নিবন্ধন হারানোর ভয়ে ভীত নয়

সময় : ৯:১০ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ০৮ মার্চ, ২০১৭


ঢাকা: বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান বলেছেন, বর্তমান সরকার জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন। সরকার বিএনপিকে ভয় পাচ্ছে, তাই তারা নিবন্ধন হারানোর ভয় দেখিয়ে তাদের অধীনে বিএনপিকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের চেষ্টা চালাচ্ছে। কিন্তু বিএনপি নিবন্ধন হারানোর ভয়ে ভীত নয়। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে নতুন গণতান্ত্রিক সরকার গঠনের আহ্বান জানান তিনি।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে তারেক রহমানের ১১তম কারাবন্দি দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘বাংলাদেশ জাতীয়বাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম’ আয়োজিত ‘ভূলষ্ঠিত গণতন্ত্র, নিষ্পেষিত জনগণ, ভঙ্গুর অর্থনীতি’ শীর্ষক এক আলোচনা সভার প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এ কথা বলেন।

জিয়াউর রহমানই স্বাধীনতার ঘোষক মন্তব্য করেছে তিনি বলেন, ‘৭ মার্চ শেখ মুজিবর রহমানের ভাষণে জনগণের প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। স্বাধীনতার ঘোষণায় স্বচ্ছতা দেখা যায়নি। ৭ মার্চের ভাষণে স্বাধীনতার ঘোষণা সম্বলিত কোন বক্তব্য ছিল না। আওয়ামী লীগের অনেক নেতাও জিয়াউর রহমানকে স্বাধীনতার ঘোষক বলে মেনে নিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন ভারত সফরকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, তিনি দেশকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার জন্য সে দেশে যাচ্ছেন’।

সভায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী বলেন, স্বাধীনতার ঘোষণা ও যুদ্ধে শেখ মুজিবর রহমানের অবদানে ঘাটতি আছে। বন্দুকের জোরে সরকার শেখ মুজিবর রহমানকে জাতীয় বীরে পরিণত করতে চাচ্ছে। আওয়ামী লীগকে ‘রসিকরাজ’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের মনে এক, বাইরে আরেক। ভারত শেখ হাসিনাকে চীনের প্রভাব কাটাতে পানি ছিটিয়ে পবিত্র করতেই তাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনার অবস্থা হবে লেন্দুপ দর্জির মত। চিরস্থয়ী গোলামে পরিণত করতেই সরকার ভারতের সাথে প্রতিরক্ষা চুক্তি করতে যাচ্ছে।

সভাপতির বক্তব্যে ‘জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মে’র সভাপতি শামা ওয়াজেদ তারেক জিয়াকে জাতীয় বীর উল্লেখ করে বলেন, সাত বছর কেন সাত হাজার বছরের কারাদণ্ডের রায় দেওয়া হলেও আগামী নির্বাচনে জনগণ তারেক জিয়াকে কাছে পাবে।

সভায় জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মে’র কেন্দ্রীয় ও তৃণমূল নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Top