আজ : রবিবার, ২২শে জুলাই, ২০১৭ ইং | ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে মানুষের ঢল

সময় : ৫:০০ অপরাহ্ণ , তারিখ : ২৭ জুন, ২০১৭


ঈদ উপলক্ষে রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে নেমেছে মানুষের ঢল। পবিত্র ঈদুল ফিতরের প্রথম দিনের নানা আনুষ্ঠানিকতা শেষে আজ মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনে ঘর ছেড়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে অনেকে বিনোদনের স্থানগুলোতে ভিড় জমিয়েছেন। ছোট-বড় সকলের উপস্থিতিতে এক বর্ণিল পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলো ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

শাহবাগের কেন্দ্রীয় শিশুপার্ক ছিল সকাল থেকেই লোকারণ্য। শিশুদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে পার্কটি। রাইডে রাইডে চড়ে সময় কাটাচ্ছে শিশুরা। আনন্দে মেতে উঠেছে তারা। শিশুদের সঙ্গে অনেক অভিভাবককেও আনন্দে মেতেআজিমপুর থেকে শিশু পার্কে ঘুরতে এসেছে শিক্ষার্থী তাহমিদুল হক। তাহমিদুল জানিয়েছে, আজকে শিশু পার্কে ঘুরতে আসতে চাইলে বাবা বাধা দেয়নি। শিশুপার্কে যাওয়ার কথা জানানোর পর পকেট থেকে টাকা বের করে দিয়েছে আমাকে।

মানুষের বিনোদনের জন্য রাজধানীতে স্থানের সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। এসব বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে মানুষের চিত্ত বিনোদনের পসরা সাজিয়ে রাখা হয়েছে। উঠতে দেখা গেছে।হাতিরঝিল, মিরপুর জাতীয় চিড়িয়াখানা, বোটানিক্যাল গার্ডেন, বলধা গার্ডেন, শ্যামলী শিশুমেলা, ধানমন্ডি ও সায়েদাবাদের ওয়ান্ডারল্যান্ড, সংসদ ভবন চত্বর, শেরে বাংলা নগরের ক্রিসেন্ট লেক, ধানমন্ডি লেক, চন্দ্রিমা উদ্যান, বুড়িগঙ্গা ব্রিজ, বঙ্গবন্ধু নভোথিয়েটারসহ রাজধানীর সব বিনোদনের স্থান ও স্থাপনাগুলো লোকারণ্য হয়ে পড়েছে।

মানুষের ঢল নামায় বিনোদনকেন্দ্রের সামনের রাস্তাগুলোতে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজট। ঈদের ছুটিতে ব্যস্ত রাজধানী অনেকটাই ফাঁকা হয়ে গেলেও বিনোদনকেন্দ্রের সামনের রাস্তাগুলোতে ধীর গতিতে যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে।

এমনকি ঢাকার উড়াল সেতুগুলোতে ঈদ আনন্দ নিয়ে ঘুরছেন নগরবাসী। মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে আপনজনকে পাশে নিয়ে অনেকেই ছবি তুলছেন। কেউ আবার দল বেঁধে চটপটি খাচ্ছেন। খাবারের দোকানে বসে গল্প আর আড্ডাও জমে উঠেছে বেশ। অনেকে আবার বাড়তি বিনোদনে রাজধানীর বিভিন্ন সিনেমাহলে চিলচ্চিত্র দেখতে ভিড় জমিয়েছেন।

শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণী ও বয়স্ক সবাই যেনো বিনোদনের খোঁজে বেরিয়ে পড়েছেন। সকাল ১০টার আগে থেকে দর্শনার্থীরা মিরপুর চিড়িয়াখানার টিকিট কাউন্টারগুলোয় ভিড় জমাতে থাকেন।ঢাকার নতুন বিনোদনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে ওঠা হাতিরঝিল প্রকল্পে ভিড় ছিল সবচেয়ে বেশি। প্রচণ্ড রোদ উপেক্ষা করে হাতিরঝিলের সৌন্দর্য্য উপভোগ করার জন্য হাজারও মানুষের ঢল নেমেছে। এছাড়া কুড়িল ও হানিফ ফ্লাইওভার যেনো বিনোদনের অংশ হিসেবে পরিণত হয়েছে।ঈদের ছুটি শেষে আবারও যান্ত্রিক জীবনে ফিরতে হবে। আর তাই এ ঈদের ছুটিতে আনন্দ উপভোগ করতে কিছুটা স্বস্তি নিয়ে বিনোদনের জন্য ঘুরে বেড়াচ্ছেন বলে জানালেন শিশুপার্কে পরিবার নিয়ে আসা মিরপুরের হাফিজ সরকার। তার মতো হাজার হাজার মানুষ অল্প কয়েকদিনের ছুটিতে একটু বিনোদনের আশায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

Top