আজ : শনিবার, ২৯শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং | ১৬ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বৈশাখের মুড়ি-মুড়কি

সময় : ৯:০০ অপরাহ্ণ , তারিখ : ১২ এপ্রিল, ২০১৭


মুড়ি-মুড়কির দেশ আমাদের এই বাংলাদেশ। তাছাড়া বাঙালীর লোক ঐতিহ্য এগুলো। প্রতিবছরই পয়লা বৈশাখে এখনো গ্রামের অনেক বাড়িতে বিকেলে চায়ের আসরে খই, মুড়ির মোয়া, মুরলি, বাতাসা থাকবেই। কখনোই এই নিয়মের হেরফের হয় না। তবে শহরেও এর প্রচলন রয়েছে। আমার অনেকের ইচ্ছে থাকা সত্বেও এগুলো তৈরি করতে পারেন না। তাদের জন্যই আজকের এই প্রতিবেদন।

গজা
যা লাগবে : ময়দা এক কাপ, তেল ৫০০ মিলি, ভাজার জন্য বাটার ২ টেবিল চামচ, পানি সিরার জন্য চিনি ১ কাপ ও পানি ১-৪ কাপ।

যেভাবে তৈরি করবেন : চিনি পানি জ্বাল দিয়ে ঘন সিরা তৈরি করে নিন। বাটার ময়দা পানি দিয়ে মেখে খামির বানিয়ে নিন। খামির থেকে ছোট ছোট লুচি বেলে ছুরি দিয়ে মাঝে কয়েকটা চিড় দিন। এবার লুচিটাকে রোল করে দুই পাশে চকোলেটের মতো মুড়িয়ে ডুবো তেলে ভেজে সিরায় ছারুন। ঠাণ্ডা হলে পরিবেশন করুন।

আঙ্গুরি
যা লাগবে : ময়দা ১ কাপ, বেকিংপাউডার, ১ চিমটি, লবণ, পরিমাণ মতো পানি ও তেল ১ কাপ, সিরার জন্য ১ কাপ চিনি ও ১-৩ কাপ পানি।

যেভাবে তৈরি করবেন : চিনির পানি জ্বাল দিয়ে ঘন সিরা করে নিন। ময়দার সঙ্গে তেল বাদে বাকি সব উপকরণ দিয়ে মেখে খামির করে নিন। মোটা রুটি বেলে ছুরি দিয়ে আঙ্গুলের মতো সাইজ কেটে ডুবো তেলে ভেজে সিরায় জ্বাল দিন। চিনি শুকিয়ে গেলে নামিয়ে ঠা-া করে নিন। ঝরঝরে হলে পরিবেশন করুন।

মুড়ির মোয়া
যা লাগবে : মুড়ি ২৫০ গ্রাম, গুড় ৪০০ গ্রাম, পানি আধা কাপ।

যেভাবে তৈরি করবেন : গুড়ে আধা কাপ পানি দিয়ে চুলায় জ্বাল দিন। গুড় ফুটে উঠে চিটচিটে হয়ে গেলে নামিয়ে এর মধ্যে মুড়ি মিশিয়ে গরম থাকতেই মোয়া গড়ে নিন।

নিমকপারা
যা লাগবে : ময়দা ১ কাপ, কালিজিরা আধা চা চামচ, তেল ১ কাপ, ঘি ২ টেবিল চামচ, বেকিংপাউডার ও ১ চিমটি, লবণ স্বাদ মতো।

যেভাবে তৈরি করবেন : ময়দার সঙ্গে ঘি ও লবণ দিয়ে ময়ান করে নিন। পানি দিয়ে কালিজিরা মথে খামিরের সঙ্গে মেখে নিন। পাতলা রুটির মতো বেলে ছুরি দিয়ে বরফি আকারে কেটে ডুবো তেলে ভাজুন। ভাজা হলে পরিবেশন করুন মজাদার মচমচে নিমকপারা।

Top