আজ : শনিবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

মাকে গোয়াল ঘরে রাখা সেই ছেলে কারাগারে

সময় : ৩:৩৮ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ৩১ মে, ২০১৭


আপডেট নিউজ পেতে পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলায় ভরণপোষণ ঠিকমতো না দেয়ার অভিযোগে ৯০ বছরের মরিয়ম নেছার ছেলে মোখলেছ আমিনকে (৬০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলার তেজপাটুলি গ্রামের মরিয়ম নেছা। তার তিন ছেলে ও দুই মেয়ে। কিন্তু সন্তানেরা তার দেখভাল করেন না বলে অভিযোগ। কিছুদিন ধরে ভিক্ষা করে চলেছেন। এরপর আশ্রয় হয় এক ছেলের গোয়ালঘরে। কয়েক দিন আগে রাতের অন্ধকারে তার একটি পায়ে শিয়ালে এসে কামড়ে দেয়। তবু ছেলেমেয়েরা তার পাশে আসেননি। তার চিকিৎসাও হয়নি। কাঁথা মুড়ি দিয়ে পড়ে ছিলেন।

এ খবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। আর এখন তার পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন একাধিক সাংসদ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)।

মরিয়মের এমন করুণ কাহিনী নিয়ে গত রোববার দুপুরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছবিসহ পোস্ট দেন ফুলবাড়িয়ার কয়েকজন সংবাদকর্মী। ওই দিনই ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

গতকাল সকাল ৯টায় ইউএনও লীরা তরফদার যান মরিয়মকে দেখতে। তার উদ্যোগে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ফুলবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ কবিরুল ইসলাম বলেন, মরিয়মের ছেলেদের মধ্যে মোখলেছ বাড়িতে থাকতেন। মায়ের প্রতি তার অবহেলার এই ন্যাক্কারজনক খবর জানাজানির পর তিনি জনরোষে পড়েন।

এ ছাড়া সন্তান হিসেবে মায়ের প্রতি অবহেলার কারণে ১৫১ ধারায় পুলিশ বাদী হয়ে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করে। তাঁকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিএ

আপডেট নিউজ পেতে পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

Top