আজ : বৃহস্পতিবার, ২৩শে আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৯ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

মেধাবীদের পুরো শিক্ষাজীবনে বৃত্তি দেওয়ার পরিকল্পনা অর্থমন্ত্রীর

সময় : ১০:৩০ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ১১ মার্চ, ২০১৭


ঢাকা: দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীর পুরো শিক্ষাজীবনের জন্য সরকারি বৃত্তি দেওয়ার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার কথা শোনালেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এজন্য দাতব্য কাজে সাধারণ মানুষকে সম্পৃক্ত হতে বলেছেন তিনি।

রাজধানীর মিরপুরে শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের উদ্যোগে আয়োজিত শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ পরিকল্পনার কথা শোনান।

জীবনে ১৬ বছর বৃত্তি পেয়েছেন জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, আমাদের বৃত্তি অনেকটা টোকেন ছিল- ৩ টাকা, ৫ টাকা, ২০ টাকা; এর বেশি পাইনি। সেদিক দিয়ে ডাচ-বাংলা ব্যাংক বৃত্তি দিচ্ছে যে একজন পুরোপুরি পড়ালেখা শেষ করবেন। সরকারও এরইমধ্যে বৃত্তির হার বাড়িয়েছে, তবে ডাচ-বাংলার স্টেজে পৌঁছতে পারেনি।

নিজের পরিকল্পনার কথা জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, আশা করবো ভবিষ্যতে সরকারও, আমরাও এদিকে অগ্রসর হবো।

‘সরকারের কোষাগার ভরার জন্য অবশ্যই সাধারণ জনগণেরও সহায়তার প্রয়োজন। তাদের আরও বেশি করে কর দিতে হবে, সরকারের রাজস্ব বাড়াতে হবে। তাহলে সরকার কার্যক্রম নেওয়ার জন্য…।’

তবে এজন্য তিনি অনুষ্ঠানে কোনো প্রোপাগান্ডা করতে আসেননি বলেও জানান অর্থমন্ত্রী।

২০১৬ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভিন্ন মেডিকেলে ভর্তি দুই হাজার ২৮ মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে এবার ডাচ-বাংলা ব্যাংকের তরফে। বর্তমানে এ ব্যাংকের বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী ১৮ হাজার ১৬১ জন। আর মোট বৃত্তি পেয়েছে ৪৩ হাজার ৬২৮ জন।

বড় বড় আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোও শিক্ষা ও স্বাস্থ্যখাতে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের মতো শিক্ষাবৃত্তি ও আর্থিক সহায়তা প্রদানে এগিয়ে এলে সেটি সবার বেশি দৃষ্টি আকর্ষণ করবে বলে মনে করেন অর্থমন্ত্রী।

Top