আজ : মঙ্গলবার, ২৭শে জুন, ২০১৭ ইং | ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

রবি’কে ৪ লাখ টাকা জরিমানা

সময় : ৯:০১ অপরাহ্ণ , তারিখ : ১৭ এপ্রিল, ২০১৭


অফারের নামে গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে মোবাইল ফোন অপারেটর রবি আজিয়াটাকে ৪ লাখ ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।পৃথক তিনটি অভিযোগের ভিত্তিতে দু’পক্ষের শুনানির পর জরিমানার আদেশ দেন প্রতিষ্ঠানের উপ-পরিচালক শাহীন আরা মমতাজ।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, ৯৮ টাকা রিচার্জ করলে ২৮ দিন মেয়াদের দেড় জিবি ইন্টারনেট সেবা পাওয়া যাবে – রবির এমন অফারে উদ্বুদ্ধ হয়ে সমপরিমাণ টাকা রিচার্জ করেন সোহাগ নামের এক গ্রাহক। তবে ফিরতি এসএমএসে তাকে বলা হয়, পাঁচ দিনের মেয়াদে এক জিবি ইন্টারনেট সেবা চালু হয়েছে।২৮ দিনের জায়গায় মাত্র পাঁচ দিনের ইন্টারনেট সেবা পাওয়ায় গ্রাহক নিজেকে প্রতারিত মনে করে গত ১১ ফেব্রুয়ারি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে অভিযোগ করেন সোহাগ। দু’পক্ষের শুনানির পর প্রতারণার প্রমাণ মেলায় রবি আজিয়াটাকে আড়াই লাখ টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

অন্যদিকে ২৪ টাকা ৩৫ পয়সা রিচার্জ করলে ৫০০ মেগাবাইট ইন্টারনেট সেবা পাওয়া যাবে, যার মাধ্যমে পুরো একদিন দেখা যাবে ইচ্ছামতো বাংলা নাটক। এমন অফারে উদ্বুদ্ধ হয়ে অফারটি মোবাইলে অ্যাকটিভ করেন মো. সাইফুল রশিদ নামের এক গ্রাহক। রবির অফারের এসএমএসে একটি ভিডিও লিংক যুক্ত করা হয়। পরে গ্রাহক অফারটি চালু করলে ওই লিংকে কোনো নাটক না পেয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে অভিযোগ করেন তিনি। শুনানির পর অভিযোগের প্রমাণ পেয়ে মোবাইল অপারেটর রবিকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস হেলথ টিপস নামক রবির একটি অফার চালু করে তা বন্ধ করতে না পারায় ক্ষতির মুখে পড়েন মো. আল আমিন নামের একজন গ্রাহক। তিনি এ ব্যাপারে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে গত ২ মার্চ অভিযোগ করেন। অভিযোগে বলা হয়, অফারটি বন্ধ করার জন্য বারবার এসএমএস করা হলেও এসএমএসের টাকা কেটে রাখা হয়, কিন্তু অফারটি বন্ধ করা হয়নি। এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রবি’কে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

এ প্রসঙ্গে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক শাহীন আরা মমতাজ বলেন, জরিমানার টাকা আজ (সোমবার) থেকে পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে সরকারি তহবিলে জমা দিতে হবে। গ্রাহকের সঙ্গে প্রতারণা করে কোনো প্রতিষ্ঠান ছাড় পাবে না। জরিমানার ২৫ শতাংশ অর্থ অভিযোগকারী পাবেন।

এ প্রসঙ্গে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম লস্কর বলেন, ভোক্তার স্বার্থে আরো সক্রিয় হয়ে কাজ করবে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। খুব শিগগিরই জনবলের সংকট দূর হয়ে যাবে। তখন সাধারণ মানুষের অভিযোগগুলো আরো দ্রুত নিষ্পত্তি করা যাবে।

Top