আজ : সোমবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৬ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

সময় : ১১:০২ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ২২ মার্চ, ২০১৭


রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি:ঝালকাঠির রাজাপুর ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন পশ্চিম পাশ এলাকার মোঃ আঃ মন্নান খানের ক্রয়কৃত

জমি দখলের পায়তারা, চাঁদা দাবি ও নির্মান সামগ্রীসহ মালপত্র লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় প্রতিবাদে গতকাল সকালে রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন

কাঠালিয়ার উত্তর চড়াইল গ্রামের মৃত সামসের উদ্দিন খানের ছেলে মোঃ আঃ মন্নান খান। সংবাদ

সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য তিনি অভিযোগ করেন, রাজাপুর ৪৭ নং মৌজার এস, এ ১৯৫৫ খতিয়ানের

৭৮৫ নং দাগের ৩৮ শতাংশ আমজেদ আলী হাওলাদারের ছেলে সামিউল আউয়াল, তারিকুল আউয়াল ও

ফুয়াদ মাহামুদ’র নিকট হতে বিগত ২০১৪ সালের ১৪ এপ্রিল রাজাপুর এস.আর অফিসের ১০২৪

নং রেজিস্ট্রিকৃত ব্যাপক ক্ষমতা সম্পন্ন অফেরযোগ্য আমমোক্তারনামা দলিলমূলে মালিক

দাতাগণের পক্ষে আমমোক্তার মোঃ মাহবুবুর রহমানের কাছ থেকে ৩৮ শতাংশ জমি দলিলমূলে ক্রয়

করেন আঃ মন্নান খান, তার স্ত্রী মোসাঃ দিলরুবা বেগম, জামাতা মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন ও বড়

মেয়ে মোসাঃ ফাতিমা আক্তার। যাহা উপজেলা ভূমি অফিস সৃজিত খতিয়ান নং ২৮০৮ এবং

ইতোপূর্বে সমাপ্ত ৩০ ধারার তাদের নামে রেকর্ডও রয়েছে। কিন্তু তারা অন্যত্র বসবাস করার

সুযোগে ওই এলাকার মৃত আহম্মদ আলী হাওলাদারের ছেলে প্রতিপক্ষ তোফাজ্জেল হোসেন, তার

ছেলে মোঃ আহসান হাবিব রুবেল ও মোঃ রাজুসহ একটি চক্র উক্ত সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের

চেষ্টা অব্যাহত রাখে এবং তাদের কাছে দশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। প্রতিপক্ষ আহসান হাবির

রুবেল উক্ত সম্পত্তির আধা অংশ দাবি করে অন্যথায় তাহার পিতা যে চাঁদা দাবি করিয়াছে তাহা

দাবি করে। পরবর্তীতে ওই জমিতে বিল্ডিং নির্মান করার জন্য গত ১৪ মার্চ ইট, বালি, সিমেন্ট,

রডসহ মালপত্র এনে রাখেন এবং চাঁদা দিতে অস্বীকার করিলে ১৭ মার্চ দুপুরে ২ লাখ টাকার

নির্মান সামগ্রী লুটে নেয়। এ ঘটনায় তোফাজ্জেল, রুবেল ও রাজু নাম উল্লেখসহ আরও ১৫/২০

জনের নামে ২০ মার্চ রাজাপুর থানায় মামলা (নং ৭) দায়ের করেছেন। পুলিশ ও আদালত সূত্র জানায়,

এ মামলায় আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে উপজেলা

ছাত্রলীগ সভাপতি আহসান হাবিব রুবেল ও তার পিতা তোফাজ্জেল হোসেনকে কারাগারে পাঠায়।

এদিকে এসব হয়রানি ও ক্রয়কৃত জমিতে নির্ভীগ্নে বসতঘর নির্মান করে বসবাস করতে পারে

এ জন্য প্রশাসনসহ সকলের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Top