আজ : রবিবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৫ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

রেইনট্রিতে ধর্ষণ: ‘গ্রেপ্তারদের মুক্তির’ মোনাজাত পালন

সময় : ৬:০৭ অপরাহ্ণ , তারিখ : ২০ মে, ২০১৭


ঢাকা: বহুল আলোচিত বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তারদের ‘মুক্তি ও আপন জুয়েলার্সকে রক্ষায়’ কক্সবাজারে একটি মসজিদে বিশেষ মোনাজাত করানোর অভিযোগ উঠেছে ইমামের বিরুদ্ধে।

জেলা শহরের বইল্লাপাড়ার বায়তুশ শরফ জামে মসজিদে শুক্রবার জুমার নামাজে এ ঘটনা ঘটে।

নামাজে আসা লোকজন তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করে এর ব্যাখ্যা চাইলে ইমাম রিদুয়ানুল হক কিছু না বলে দ্রুত সেখান থেকে সটকে পড়েন বলে মুসল্লিরা জানিয়েছেন।

জুমার নামাজে আসা মাহবুব কামাল বলেন, “নামাজ আদায় করার সময় আমি প্রথম কাতারে দাঁড়িয়েছিলাম। নামাজ শেষে ইমাম মাওলানা রিদুয়ানুল হক বিশেষ মোনাজাতের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।

“এসময় মসজিদটি ও বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সের মহাপরিচালক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী এগিয়ে গিয়ে ইমাম সাহেবকে কানে কানে কী যেন বলেন। এরপরই বিশেষ মোনাজাতে এ ঘটনা ঘটে।”

মাহবুব কামাল বলেন, ইমাম রিদুয়ানুল হক ঢাকার বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তারদের মুক্তি এবং আপন জুয়েলার্সকে রক্ষার জন্য মোনাজাত শুরু করেন। এতে নামাজে আসা লোকজন প্রতিবাদ করে এর ব্যাখা চাইলে ইমাম সাহেব দ্রুত মসজিদ থেকে সটকে পড়েন।

কক্সবাজার শহরে সুপরিসর তিন তলাবিশিষ্ট বায়তুশ শরফ জামে মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে প্রতি শুক্রবার কয়েক হাজার মুসল্লি জমায়েত হন। এ ঘটনার পর মুসল্লিরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন।

Top