আজ : রবিবার, ২৪শে জুন, ২০১৭ ইং | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

সপ্তাহের শেষ দিনে মূল্যসূচক ও লেনদেনে পতন

সময় : ১০:৩৪ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ২৩ মার্চ, ২০১৭


ঢাকা:সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্য সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। আজ ডিএসইতে আগের দিনের তুলনায় লেনদেনও কমেছে। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও একই চিত্রে লেনদেন শেষ হয়েছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, ডিএসইতে ১ হাজার ৪০ কোটি ৮৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যার পরিমাণ আগেরদিন ছিল ১ হাজার ২৯০ কোটি ৩৮ কোটি টাকা। এ হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ২৪৯ কোটি ৪৯ লাখ টাকার বা ১৯ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ১০ পয়েন্ট কমে দাড়িয়েছে ৫৭২৬ পয়েন্টে। যা বুধবার ১১ পয়েন্ট, মঙ্গলবার ২৯ পয়েন্ট ও সোমবার ০.২৭ পয়েন্ট বেড়েছিল।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩২৮টি কোম্পানির মধ্যে ১৩০টি বা ৩৯.৬৩ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ১৫৪টি বা ৪৬.৯৫ শতাংশ কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৪টি বা ১৩.৪১ শতাংশ কোম্পানির।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। এদিন কোম্পানির ৫৩ কোটি ৫৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা সিটি ব্যাংকের ৩৭ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৩০ কোটি ২১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে এবি ব্যাংক।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ন্যাশনাল ব্যাংক, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, সিঅ্যান্ডএ টেক্সটাইল, আরএসআরএম স্টিল, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস, ওয়ান ব্যাংক ও জিপিএইচ ইস্পাত।

এদিন অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ২৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১০৭৬৫ পয়েন্টে। বাজারটিতে ৬৯ কোটি ২৩ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। লেনদেন হওয়া ২৫৮টি ইস্যুর মধ্যে দাম বেড়েছে ১০৫টির, কমেছে ১৩১টির এবং অপরিবর্তীত রয়েছে ২২টির।

এর আগেরদিন সিএসইর সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ২৬ পয়েন্ট বেড়েছিল। আর ৮১ কোটি ৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছিল।

Top