আজ : সোমবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৬ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

স্থায়ী অস্থায়ীদের পেটের ক্ষুদায় বিক্ষোভ বিসিসির পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশের অবস্থান….

সময় : ৩:১৮ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ২৪ মার্চ, ২০১৭


এম.এস.আই লিমনঃগতকাল স্থায়ী অস্থায়ীদের আন্দোলনে থরকম্প সৃস্টি হয় বিসিসির নগর ভবনে। শ্রমের মজুরী ন্যায্য পাওনা বকেয়া বেতন পরিশোধ করা নিয়ে দরিমষি করায় কয়েক শতাধিক শ্রমিক ও স্থায়ী কর্মকর্তা কর্মচারীরা গতকাল সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১ পর্যন্ত বিক্ষোভ করে নগর ভবনের সামনে। পরিস্থিতি বেশামাল হয়ে পরায় পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে উত্তাল পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করেছে বলে জানা গেছে।বিসিসি সুত্রে জানা গেছে স্থায়ী প্রায় ৫শতাধীক কর্মকর্তা কর্মচারীদের ৫ মাসের বকেয়া বেতন ও ৩২ মাসের প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা ৩ধাপে পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দিয়েও না দেয়ায় এবং অস্থায়ী শ্রমিকদের ৩মাসের মজুরী না পাওয়ায় বিক্ষোভ করেছে তারা। এর আগে টানা কর্মবিরতি করে নগরী প্রায় অচল করে দেয় ভূক্তভোগীরা। ফলে নগরবাসীকে ভ্যাট ট্যাক্স দিয়ে উপহাড় সরুপ পোহাতে হয়েছিল ভোগান্তি। একপর্যায়ে ইমেইজ সংকটে পরায় মেয়র আহসান হাবীব কামালের নগর সেবা দিতে গিয়ে বাধা সৃস্টি হওয়াতে আন্দোলনের তোপের মুখে পরে। মেয়রের প্রতিনিধি হয়ে কয়েক কাউন্সিলর ৩ ধাপে তাদের ন্যায্য পাওনা পরিশোধ করা হবে এমন প্রতিশ্রুতি দিয়ে আন্দোলনের সমাপ্তি ঘটালেও প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বাস্তবায়ন না হওয়ায় ক্ষুব্দ হয়ে আন্দোলনে নেমেছে। আন্দোলন কারীরা জানায় প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী যেহুতু বকেয়া পরিশোধ করা হয় নি আগামি সোমবার থেকে লাগাতার কর্মবিরতি পালন করবে তারা। নগরীর সকল সেবা মুলক কাজ বন্ধ করে আন্দোলনে নামবে বকেয়া বেতনের আদায়ের জন্য। এব্যাপারে পরিচ্ছন্নতা কর্মকর্তা দীপক লাল মৃধা জানায়, জনপ্রতিনিধিদের সাথে কথা হয়েছে তাদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বকেয়া পরিশোধ না করা হলে লাগাতার কর্মবিরতির আন্দোলন করবে আগামি সোমবার থেকে ন্যায্য পাওনা আদায়ের লক্ষে স্থায়ী সকল কর্মকর্তা কর্মচারীরা ঐক্কবদ্ধ ভাবে।

Top