আজ : বৃহস্পতিবার, ২৯শে জুন, ২০১৭ ইং | ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

স্রোতের মতো নির্বাচনও বসে থাকবে না

সময় : ৪:৩৭ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ০৯ মার্চ, ২০১৭


নোয়াখালী: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সময় ও স্রোত কারও জন্য বসে থাকে না। দেশের সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনও কারও জন্য বসে থাকবে না। ক্ষমতাসীন সরকারের তত্ত্বাবধানেই নির্বাচন হবে।

আজ বুধবার সকালে নিজের নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের সরকারি মুজিব কলেজে নবীনবরণ ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন সেতুমন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, পৃথিবীর অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশে যেভাবে ক্ষমতাসীন সরকারের তত্ত্বাবধানে নির্বাচন হয়, সেভাবে বাংলাদেশে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। ক্ষমতাসীন শেখ হাসিনা সরকারের তত্ত্বাবধানেই নির্বাচন হবে। সরকার এখানে নির্বাচন তত্ত্বাবধান করবে। তখন কোনো বড় সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা সরকারের থাকবে না। পুলিশ, প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বা বিভাগ নির্বাচন কমিশনের অধীনে থাকবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আজকে কোনো কোনো দল বলছে, বর্তমান সরকারের অধীনে তারা নির্বাচনে যাবে না। কিন্তু নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে, সরকারের অধীনে নয়। অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশ এবং বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ী এই সরকার নির্বাচনে সহায়তা করবে। নির্বাচনে কোনো সহায়ক সরকারের সুযোগ বাংলাদেশের সংবিধানে নেই।

বিএনপির প্রতি ইঙ্গিত করে সেতুমন্ত্রী বলেন, দেশে কোনো কোনো দল আছে, যারা শুধু মানি না মানব না বলে ভাঙা রেকর্ড বাজিয়ে যাচ্ছে। তারা এই রেকর্ড আগামী নির্বাচনের ফলাফল পর্যন্ত বাজাবে। কিন্তু নির্বাচনে না এসে রাজনৈতিক দল হিসেবে নিজেদের অস্তিত্ব বিপন্ন করার ঝুঁকি তারা নেবে বলে বিশ্বাস হয় না।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সরকারি মুজিব কলেজের অধ্যক্ষ জিয়াউদ্দিন চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. ইলিয়াছ শরীফ, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা প্রমুখ।

পরে সেতুমন্ত্রী একই উপজেলার বামনী ডিগ্রি কলেজের নবীনবরণ অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সেখানেও তিনি বক্তব্য দেন।

Top