গোসল না করায় স্বামীকে তালাক স্ত্রীর

স্বামী টানা এক সপ্তাহ ধরে গোসল করেনি ও দাড়ি কামায়নি, এই অভিযোগে ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক ২৩ বছর বয়সী মহিলা বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন করলেন। গত বছরেই বিয়ে হওয়া এই দম্পতিকে টানা ৬ মাস আলাদা থাকার নির্দেশ দিয়েছে ভোপাল হাইকোর্ট। তারপরই তাদের বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন গ্রাহ্য হবে বলে জানান এক আইনজীবী।

আদালতের ওই আইনজীবী শাহিল অবস্তী সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানান, “ভোপালের পরিবার আদালতের বিচারপতি আর এন চাঁদ ওই দম্পতিকে ৬ মাস আলাদা থাকার নির্দেশ দিয়েছেন”। ওই ২৩ বছর বয়সী মহিলা এবং তার ২৫ বছর বয়সী স্বামী একইসঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন করেন বলে জানান তিনি। ওই মহিলা অভিযোগে লেখেন, টানা ৭-৮ দিন গোসল না করে, দাড়ি না কামিয়ে থাকেন তার স্বামী। তাই তার পক্ষে ‘এমন পুরুষের সঙ্গে থাকা সম্ভব নয়’।

শাহিল অবস্তী বলেন, খুব তুচ্ছ বিষয়েও এখন মহিলারা স্বামীর থেকে বিচ্ছেদ চেয়ে বসছেন। এই মহিলার অভিযোগ, তার স্বামীর শরীর থেকে ভয়ঙ্কর দুর্গন্ধ বেরোয়। তার আরো অভিযোগ, যখনই তিনি স্বামীকে গোসল করতে বলতেন, তখনই, গোসল করার বদলে তার স্বামী গায়ে সুগন্ধী লাগিয়ে নিতেন। ২০১৬ সালে এমনই একটি ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসে উত্তরপ্রদেশের মীরাট থেকে। ৩৬ বছর বয়সী এক ব্যক্তি জানিয়েছিলেন, তিনি দাড়ি না কামালে তার স্ত্রী আত্মহত্যা করবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*