আজ : বৃহস্পতিবার, ২৩শে নভেম্বর ২০১৭ ইং | ৯ই অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

হতে পারে আগাম নির্বাচন !!!


সকল নিউজ আপডেট পেতে পেইজে লাইক দিন

জাতীয় সংসদ নির্বাচন হতে আরও এক বছর বাকি। কিন্তু সরকার আকস্মিকভাবে আগাম নির্বাচনে যেতে পারে। বিএনপি অপ্রস্তুত রেখে নির্বাচনের ঘোষণা সরকারকে বাড়তি সুবিধা দেবে। সরকারের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র এরকম অভিমত ব্যক্ত করেছেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে নানামুখী ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত চলছে বলে সরকারের কাছে নিশ্চিত খবর আছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও অন্তত দুবার বলেছেন, ‘একটি মহল নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছে।’ আগাম নির্বাচনের মাধ্যমে, সরকার কেবল অগোছালো বিএনপিকে অপ্রস্তুত করতেই চায়না, বিএনপির আন্দোলনের শক্তিকেও দূর্বল করতে চায়। বিএনপি বারবার বলছে তারা সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন চায়।

শুধু ষড়যন্ত্র নয়। আগাম নির্বাচন অপ্রস্তুত বিএনপির একটি বড় অংশকে মাঠে আনবে, এরকম নিশ্চিত খবর সরকারের কাছে আছে। এর বাইরেও সরকারের অভিজ্ঞতা হলো, শেষ বছরে প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর সরকারের নিয়ন্ত্রণ আলগা হয়ে যায়। অনেকেই সরকারের নির্দেশনা ও সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে নানা অজুহাত দেখায়। এ কারণে আগাম নির্বাচন সরকারের নিয়ন্ত্রণকে আলগা হতে দেবে না।

বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী, সংসদের মেয়াদ শেষ হবার ৯০ দিন আগে জাতীয় সংসদ নির্বাচন করা বাধ্যতামূলক। সে হিসেবে আগামী বছরের ২৮ অক্টোবর থেকে ২৮ জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচন করার সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তবে, সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে এর আগেও নির্বাচন করা যায়। সেক্ষেত্রে নির্বাচন হবে, সংসদ ভেঙ্গে দেওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে। সরকার যে আগামী বছরের শেষ পর্যন্ত নির্বাচনের জন্য অপেক্ষা করবে না তা স্পষ্ট। কিন্তু নির্বাচন কতটা এগিয়ে আনা হবে, সেটাই দেখার বিষয়।

আরও পড়ুন...
Top