আজ : মঙ্গলবার, ২১শে নভেম্বর ২০১৭ ইং | ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

চমকে দেবে বিএনপি


bdbarta24.net সকল নিউজ আপডেট পেতে পেইজে লাইক দিন

‘আচমকা নির্বাচনে যাবার ঘোষণা দিয়ে আওয়ামী লীগকে চমকে দেবে বিএনপি।’ লন্ডন থেকে ফেরত বিএনপির একজন মাঝারি সারির নেতা এমন মন্তব্য করেছেন। ওই নেতা লো প্রোফাইল কিন্তু জিয়া পরিবারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ। বেগম জিয়ার সঙ্গেই তিনি লন্ডন থেকে এসেছেন। দলে তাঁর পরিচয় তারেক জিয়ার খাস লোক হিসেবে। লন্ডনে তিনমাস বেগম জিয়ার ফাইফরমাস খেটেছেন। বিএনপির অন্দর মহলের খবর তিনি সব থেকে বেশি জানেন।

তাঁর মতে, যেকোনো পরিস্থিতিতেই আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে। তবে সহায়ক সরকারের একটা প্রচণ্ড চাপ সৃষ্টি করা হবে। তাতে ক্ষমতাসীনরা মনে করবে বিএনপি বোধহয় এবারও নির্বাচন করবে না। বিএনপি নির্বাচনে যাওয়ার ঘোষণা দেবে আচমকা।

ওই নেতা আরও জানিয়েছেন, বর্তমান সরকারের প্রশাসনের একাংশের সঙ্গে বিএনপি নিবিড় যোগাযোগ স্থাপন করতে সক্ষম হয়েছে। তাঁর মতে, অন্তত ১০ জন সচিব পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা আছেন যাঁদের সঙ্গে বিএনপির তথ্য আদান প্রদান হচ্ছে। অতিরিক্ত সচিব পর্যায় থেকে উপসচিব পর্যায়ে অন্তত অর্ধেক সরকারি কর্মকর্তার বিএনপির সঙ্গে যোগাযোগ আছে। তাঁর মতে, পদোন্নতি বঞ্চনা থেকে এবং মুষ্ঠিমেয় আমলাদের দৌরাত্মের কারণে প্রশাসনের একটি বড় অংশ এখন সরকার বিরোধী। তাঁরা শুধু নির্বাচনে বিএনপির যাবার ঘোষণার অপেক্ষায় আছে। একই অবস্থা পুলিশ বাহিনীতেও বলে ওই নেতা জানিয়েছেন। তিনি দাবি করেছেন, লন্ডনে অন্তত এক হাজার আমলা ও পুলিশ কর্মকর্তার নামের তালিকা তারেক জিয়া বিএনপি চেয়ারপারসনকে দিয়েছেন। এই কর্মকর্তারা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পক্ষে কাজ করবে না।

ওই নেতার দাবি অনুযায়ী, বিএনপি অগোছালো নয়, বরং বিএনপি প্রথম দল যারা ৩০০ আসনের মনোনয়ন চূড়ান্ত করে ফেলেছে। সম্ভাব্য প্রার্থীদের সবুজ সংকেতও দেওয়া হয়েছে। তাঁরা এলাকায় কাজও শুরু করেছে। প্রত্যেকেই তারেককে তাঁদের এলাকার পরিস্থিতি সম্পর্কে নিয়মিত তথ্য দিচ্ছেন।

অন্যদিকে, বিএনপির একাধিক সিনিয়র নেতার সঙ্গে কথা বলে স্পষ্ট ধারণা পাওয়া গেছে, বাইরে সহায়ক সরকার নিয়ে আওয়াজ তুললেও বিএনপি আসলে নির্বাচনের প্রস্তুতির কাজটি করছে। বিএনপির একজন সিনিয়র নেতা বলেছেন, ‘ম্যাডাম ইতিমধ্যেই নমিনেশন ঠিক করে ফেলেছেন। আমাদের মাঠের অবস্থা ভালোই।’ তিনি বলেন, ‘আমরা এমনভাবে মাঠে নামব যে আওয়ামী লীগই ভ্যাবাচ্যাবা খাবে।’

বিএনপির সব নেতারই মত, ‘এবার যাই হোক ২০১৪ সালের মতো নির্বাচন হবে না।নির্বাচন কমিশনে বিএনপির সংলাপ তার একটি ইঙ্গিত বলে জানালেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য।

আরও পড়ুন...
Top