আজ : বৃহস্পতিবার, ২৩শে নভেম্বর ২০১৭ ইং | ৯ই অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

আ. লীগের অধীনে নির্বাচনের পক্ষে-বিপক্ষে যারা


bdbarta24.net/ সকল নিউজ আপডেট পেতে পেইজে লাইক দিন

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৪০টি রাজনৈতিক দলের মধ্যে ১৮টি দল বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নির্বাচন চায় না। আর ৯টি দল বর্তমান সংসদের অধীনে নির্বাচন চায়। অন্যদিকে ১২টি রাজনৈতিক দল বর্তমান সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে এ সংসদের প্রতিনিধি নিয়ে ছোট একটি সরকার গঠনের পক্ষে মত দিয়েছে। যদিও এ বিষয়ে ইসির সঙ্গে সংলাপে কোনো মত দেয়নি আওয়ামী লীগ।

এই সরকারের অধীনে নির্বাচন চায় না- বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি), বাংলাদেশ মুসলিম লীগ (বিএমএল), খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস, ইসলামী ফ্রন্ট বাংলাদেশ, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টি (পিডিপি), জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি), জাতীয় পার্টি (জপি), বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ও লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি)।

সংলাপের প্রস্তাব পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, নির্বাচনের সময়ে কোন ধরনের সরকার থাকবে তা নিয়ে দলগুলোর মধ্যে ব্যাপক মত পার্থক্য রয়েছে। ১২টি দল নির্বাচনের সময়ে অন্তর্বর্তী রাজনৈতিক সরকার থাকার পক্ষে মত দিয়েছে। এর মধ্যে জাতীয় পার্টি, বিএনএফসহ কয়েকটি দল বিভিন্ন দলের প্রতিনিধি নিয়ে নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার গঠনের প্রস্তাব করেছে। নির্বাচনকালীন সরকার রুটিন কাজ করবে বলেও এসব দলের পক্ষ থেকে মত এসেছে। তবে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সংলাপে নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা নিয়ে কোনো প্রস্তাব করা হয়নি। দলটির নেতারা বিভিন্ন সময়ে বলেছেন, সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনী অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার থাকবে।

অন্তর্বর্তী রাজনৈতিক সরকারের পক্ষে থাকা দলগুলো হচ্ছে- বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ), গণফ্রন্ট, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি, গণতন্ত্রী পার্টি, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (এমএল), ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি), বাংলাদেশ মুসলিম লীগ, জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ ন্যাপ ও জাতীয় পার্টি (জেপি)।

জাতীয় পরিষদ গঠনের প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তি জোট। বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ইসিকে তদারকি সরকারের ভূমিকা পালনের প্রস্তাব করেছে। প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টি (পিডিপি) প্রধানমন্ত্রীকে ঐচ্ছিক ছুটিতে পাঠিয়ে সিইসির নেতৃত্বে অস্থায়ী সরকার গঠনের কথা বলেছে।

নারী প্রতিনিধিত্ব নিয়ে আপত্তি: ২০২০ সালের মধ্যে ৩৩% সম্ভব না বলে মত দিয়েছে বিএমল, খেলাফত মজলিশ, ৩৩% নারী প্রতিনিধিত্বের বিধান বাতিলের সুপারিশ ইসলামী ফ্রন্ট, কমিটিতে ৩৩% নারী চায় না জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এবং সংসদ ও দলে নারীর বিধান বাতিল চায় বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন।

আরও পড়ুন...
Top