২০শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, রবিবার

আমাকে ধর্ষণ করেছে ৫৫ বছর বয়সী নানা

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

কুমিল্লার সদর দক্ষিনে ঘরে একা পেয়ে ৬ বছর বয়সী এক শিশু নাতনিকে ধর্ষণ করেছে, ৫৫ বছর বয়সী নানা। শিশুটির মায়ের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ পাষন্ড নানাকে গ্রেফতার করেছে। অপরাধ স্বীকার করায় বুধবার ( ১৯ সেপ্টেম্বর) আদালতের নির্দেশে নানাকে জেল হাজতে প্রেরণ করে। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর)কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার মধ্যম বিজয়পুর এলাকায়।

জানা যায়, স্বামীর সাথে বনিবনা না হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরে নিজের ৬ বছর বয়সী কন্যা শিশু ও ৪ বছর বয়সী পুত্র শিশুকে নিয়ে পিত্রালয়ে বসবাস করেন তমা চক্রবর্তী। মা কল্পনা রানীসহ তমা কুমিল্লা ইপিজেডের একটি টেক্সটাইলে চাকরী করেন। গত ১৮ সেপ্টেম্বর তমা কর্মস্থল থেকে রাত অনুমান ৮ টায় বাড়ী ফিরে দেখে তার কন্যা কান্না করছে। জিজ্ঞাসাবাদে শিশুটি মাকে জানায়, তার নানা তাকে ধর্ষণ করেছে।

এ ঘটনায় তমা তার পিতা বিজয় চন্দ্রকে আসামি করে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ নানা বিজয় চন্দ্র দে কে গ্রেফতার করে আদালতে হাজির করলে বিচারক তাঁকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এসময় আসামী বিচারকের নিকট ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্ধি দেয়।

সদর দক্ষিণ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) কমল কৃঞ্চ ধর বলেন, ঘটনাটি নির্মম। পাষন্ড নানাকে আদালতের নির্দেশে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন