আজ : বৃহস্পতিবার, ১৬ই আগস্ট, ২০১৭ ইং | ২রা ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

আশ্রমে পুড়ে শেষ হলো ২০ শিশু-কিশোরী

সময় : ১২:৩১ অপরাহ্ণ , তারিখ : ০৯ মার্চ, ২০১৭


আন্তর্জাতিক ডেস্ক :আগুনে পুড়ে শেষ হলো ২০ শিশু-কিশোরীর জীবন। অনুপোযোগী বাসস্থান ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করতে গিয়ে আগুনে নিঃশেষ হওয়ায় ২০ কিশোরী গুয়াতেমালার নাগরিক।

গুয়াতেমালার রাজধানী গুয়াতেমালা সিটির ২৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে স্যান জোস পিনুলা শহরে ভার্জিন ডি অসানসিয়ন নামে শিশু-কিশোরী আশ্রয়কেন্দ্রে মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে। বুধবার শোকাহত পরিবারের সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন।

আলজাজিরা অনলাইনের এক খবরে বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গুয়াতেলামার সমাজকল্যাণ সংস্থার প্রধান কার্লোস রোডস জানিয়েছেন, আশ্রয়কেন্দ্র বের হয়ে যাওয়ার জন্য মঙ্গলবার থেকে দাঙ্গা শুরু করে কিশোরীরা। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার সকাল ৯টার দিকে তারা আশ্রয়কেন্দ্রে আগুন লাগিয়ে দেয় এবং এতে পুড়েই তাদের মৃত্যু হয়।

আশ্রয়কেন্দ্রে থাকার ব্যবস্থা ও নীপিড়ন নিয়ে অভিযোগ নতুন কিছু নয়। নাজুক পরিবেশে আশ্রয়কেন্দ্রে গাদাগাদি করে বসবাস করে শিশু-কিশোররা।

কার্লোস রোডস বলেছেন, ‘আশ্রয়কেন্দ্রের বিক্ষুব্ধ কয়েকজন কিশোরী তাদের লেপতোশকে আগুন ধরিযে দেয়। এতে তাদের ওই ২০কিশোরী মারা যায়।’ তিনি আরো বলেন, আমরা এর দায় এড়াতে পারি না। আমরা দায় নিচ্ছি কিন্তু আমরা জীবনগুলো ফিরিয়ে দিতে পারব না।’

এ ঘটনায় আহত ৪১ জন দুটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তাদের বয়স ১৩ থেকে ১৭ বছরের মধ্যে।

ভার্জিন ডি আসানসিয়ন আশ্রয়কেন্দ্রে ৪০০ জনের থাকার ব্যবস্থা রয়েছে কিন্তু সেখানে রাখা হয়েছে পাঁচ শতাধিক শিশু¬-কিশোরীকে।

Top