আজ : সোমবার, ২১শে আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৬ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

কাবুলে চিকিৎসকের বেশে সামরিক হাসপাতালে হামলা

সময় : ৯:২৫ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ০৮ মার্চ, ২০১৭


আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে দেশটির সবচেয়ে বড় সামরিক হাসপাতালে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে নিরাপত্তাকর্মীদের গোলাগুলি হয়েছে।

আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘সরদার দাউদ খান হাসপাতাল হামলার শিকার হয়েছে।’ এটি আফগানিস্তানের সবচেয়ে বড় সামরিক হাসপাতাল।

সন্ত্রাসীরা হামলা চালানোর পর তাদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে আফগান নিরাপত্তা বাহিনী। তবে অভিযান এখনো সমাপ্ত ঘোষণা করেনি তারা।

বিবিসি অনলাইনের ব্রেকিং নিউজে বুধবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কাবুলে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের পাশে ৪০০ শয্যাবিশিষ্ট সরদার দাউদ খান হাসপাতালের অবস্থান।

হাসপাতালের এক কর্মী বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, চিকিৎসকের পোশাক পরা এক সন্ত্রাসীকে অস্ত্র বের করে বেপরোয়া গুলি চালাতে দেখেন তিনি। এ সময় দুজন মারা যান।

টোলো নিউজ টেলিভিশন স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, প্রাথমিক তথ্যানুযায়ী এ গোলাগুলিতে কমপক্ষে ১৩ জন আহত হয়েছে, যাদের চিকিৎসার জন্য অন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

তবে হাসপাতালের মধ্যে পরিস্থিতি সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। হতাহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

হাসপাতালের এক কর্মকর্তা তার ফেসবুক পেজে জানিয়েছেন, ‘হামলাকারীরা হাসপাতালের ভেতরে। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

এর আগে হাসপাতালে একটি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। গত সপ্তাহে কাবুলে দুটি আত্মঘাতী হামলায় ১৬ জন নিহত হয়।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে আলজাজিরা জানিয়েছে, বুধবার সকালে কাবুলের ওয়াজির আকবর খান এলাকায় সামরিক হাসপাতালের প্রধান ফটকে বিস্ফোরণ হয়।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র দৌলত ওয়াজিরি বলেছেন, ‘আমাদের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা যথাস্থানে থেকে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে লড়ছেন। তবে তারা সাবধান রয়েছেন, আর যেন কোনো প্রাণহানি না হয়। খুবই কঠিন পরিস্থিতি এটি।’

ওয়াজির আকবর খান নামের এই এলাকায় সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ভবন ও বেশ কিছু বিদেশি দূতাবাস রয়েছে।

বুধবারের এই হামলার দায়ী স্বীকার করেননি কোনো পক্ষ। তবে আফগানিস্তানে এ ধরনের হামলা চালিয়ে তাকে আফগান তালেবান।

Top