আজ : বুধবার, ২২শে আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৮ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

খালেদার রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার কার্যক্রম স্থগিতই থাকল

সময় : ৯:১৫ অপরাহ্ণ , তারিখ : ০৯ এপ্রিল, ২০১৭


ঢাকা: মুক্তিযুদ্ধে শহিদের সংখ্যা নিয়ে মন্তব্য করায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা স্থগিতের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদন কার্যতালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন চেম্বার আদালত।

এর ফলে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা রাষ্ট্রদ্রোহের মামলার কার্যক্রম স্থগিতই থাকল বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

রোববার আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের আদালত এই আদেশ দেন।

আদালতে খালেদার পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

এর আগে গত ২৯ মার্চ বিচারপতি মিফতাহ উদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি এ এন এম বসির উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ খালেদার রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার কার্যক্রম ৬ মাসের জন্য স্থগিত করেন।

একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা নিম্ন আদালতে অভিযোগ আমলে নেওয়ার আদেশ কেন অবৈধ ঘোষণা কর হবে না, তা জানতে চেয়ে চার সপ্তাহের রুলও জারি করেন আদালত। পরে এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেন রাষ্ট্রপক্ষ।

২০১৫ সালের ২১ ডিসেম্বর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে খালেদা জিয়া বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধে শহিদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক আছে। আজকে বলা হয়, এতো লাখ লোক শহিদ হয়েছে। এটা নিয়েও অনেক বিতর্ক আছে।’

এ ঘটনায় ২০১৬ সালের ২১ জানুয়ারি খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে মামলা করে সুপ্রিম কোর্ট বারের প্রাক্তন সম্পাদক ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ড. মমতাজ উদ্দিন মেহেদি। পরে এই মামলায় তিনি নিম্ন আদালত থেকে জামিন নেন।

এই মামলাটি পরে মহানগর দায়রা জজ আদালতে স্থানান্তরিত হয়। ওই আদালত ২০১৬ সালের ১০ আগস্ট মামলার অভিযোগ আমলে নেন। অভিযোগ আমলে নেওয়ার আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করেন খালেদা জিয়া।

Top