২১শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, রবিবার

খেলোয়াড়কে পেটালেন ছাত্রলীগ নেতা

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ব্যাপক সংঘর্ষ আর মারামারিতে পণ্ড হয়ে গেছে ফটিকছড়িতে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল অনুর্ধ্ব-১৭ আন্তঃইউনিয়ন ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা।

রোববার বিকেলে উপজেলার করোনেশন পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে চলমান টুর্নামেন্টের মধ্যসময়ে বল মাঠ থেকে তুলে নেয় আয়োজক কর্তৃপক্ষ। এর আগে উভয় গ্রুপের মারামারি ও সংঘর্ষে একপক্ষের তিন খেলোয়াড় আহত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচের প্রথমার্ধেও খেলা সুন্দরভাবে শেষ হলেও বিপত্তি বাজে দ্বিতীয়ার্ধের মাত্র তিন মিনিটের মাথায়। ততক্ষণে পৌর একাদশকে ১-০ গোলে পেছলে ফেলে এগিয়ে যায় নারায়াণহাট ইউপি একাদশ। এর পরপরই দর্শক সারি থেকে হৈহুল্লুড় ও বিশৃংখলা শুরু হয়ে যায়। এরমধ্যে পৌরসভা একাদশের পক্ষে একটি ফ্রি কিক নিতেই বল নিয়ে দু‘দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে বাগবিতণ্ডা থেকে শুরু হয় হাতাহাতি।

অভিযোগ উঠেছে, ফটিকছড়ি পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু শোয়াইবের নেতৃত্বে কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতা-কর্মী মাঠে নেমে নারায়ণাহাট একাদশের খেলোয়াড় দেবী কুমার ত্রিপুরা (গোলকিপার) এবং ডিফেন্ডার স্বদেশ ধর ও মোহাম্মদ ওসমান গণিকে পিটাতে থাকে। এরপরই মাঠে নেমে দর্শকরাও মারামারি জড়িয়ে পড়েন। পরে পুলিশ ও আনসার সদস্যরা লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন