২৩শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, মঙ্গলবার

নাটোরে শিশু ধর্ষন ও হত্যার পৃথক মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

জেলা প্রতিনিধি, নাটোরঃ নাটোরে প্রতিবন্ধি শিশু ইতি খাতুন ধর্ষন এবং যুবক আরমান হত্যার পৃথক দুটি মামলার রায়ে তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল এবং জেলা ও দায়রা জজ আদালত পৃথক এই দুটি মামলার রায় ঘোষনা করেন।

আদালত সুত্রে জানা যায়, ২০০৮ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুপুরে সদর উপজেলার জংলি মন্ডলপাড়া এলাকার মৃত সাইদুল্লার ছেলে আলাল প্রতিবেশী ইসলামের বাড়িতে যায়। এসময় ইসলামের ১৩ বছর বয়সী বাক প্রতিবন্ধী মেয়েকে একাকী পেয়ে জোর করে ধর্ষন করে। পরে ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর শিশুটির বাবা বাদী হয়ে আলালের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে মামলাটি বিচারের জন্য নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে প্রেরিত হলে স্বাক্ষ্য প্রমান শেষে বুধবার আদালতের বিচারক জেলা জজ মোঃ মাইনুল ইসলাম এই আদেশ দেন।

নাটোর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের পিপি শাজাহান কবীর আলালের সশ্রম কারাদন্ড প্রদানসহ ভিকটিমকে ৫০ হাজার টাকা প্রদানের আদেশ দেওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেন। দন্ডপ্রাপ্ত আসামীর নিকট থেকে ঐ টাকা আদায়ের জন্য জেলা প্রশাসকের ওপর দায়িত্ব প্রদানের ক্ষমতা দিয়েছে। আদেশে প্রয়োজনে আসামীর পরিবারের মালামাল ক্রক পূর্বক বিক্রি করে সমুদয় টাকা ভিকটিমকে প্রদানের আদেশ দিয়েছেন।

অপরদিকে, ২০১৪ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর মাসের সদর উপজেলার রামনগর এলাকায় আরমান আলী নামের এক যুবককে কয়েকজন সহযোগী বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এসময় রাতের কোন এক সময় হত্যা করে একটি বাশ বাগানে আরমান আলীর লাশ ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন। করে। এই ঘটনায় আরমানের পিতা সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুস সালাম বাবলু বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামী করে নাটোর সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে মামলার স্বাক্ষ্য প্রমান শেষে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রেজাউল করিম আসমীদের মধ্যে দু’জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেন। বাকিদের বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন সদর থানার রামনগর এলাকার মোতাহার আলীর ছেলে সুমন আলী এবং ঐ একই এলাকার কালা মিয়ার ছেলে আব্দুল আলিম।

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন