আজ : বৃহস্পতিবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৭ ইং | ২রা ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

পুত্রকে হত্যার পর এবার পিতাকে হত্যার হুমকি

সময় : ১২:০০ অপরাহ্ণ , তারিখ : ২৩ মার্চ, ২০১৭


রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি:ঝালকাঠির রাজাপুরের বড়ইয়া সময় দিন নির্ধারণ করে পূর্ব ঘোষণা

অনুযায়ী হত্যা করা হয় কলেজ পড়–য়া ছাত্র সোহেল রানাকে। ২০১৫ সালের ২৬

আগস্ট দুপুরে কলেজ থেকে ফেরার পথে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী হত্যাকান্ড

ঘটায় প্রতিপক্ষরা। এঘটনায় সোহেল রানার পিতা আমজেদ আলী বাদী হয়ে

রাজাপুর থানায় আব্দুল্লাহ আল মাহবুব, স্ত্রী নারগিছ আক্তার নাছিমা ও তার

পুত্র মেহেদী হাসান শুভ আসামী করে হত্যা মামলা (নং-১১৯/১৫) দায়ের করেন।

মামলার পরে মাহবুবের পুত্র শুভ ঢাকায় অস্ত্রসহ আটক হয়। মাহবুব ও নাছিমা

আদালতে আত্মসমর্পন করে দীর্ঘ দিন কারাভোগ করে জামিনে বের হয়। এরপর

থেকে বাদী, স্বাক্ষী ও সহযোগিদের খুন-জখমসহ বিভিন্ন ধরণের হুমকি দেয়।

এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিলে এসআই নজরুল তদন্ত করে সত্যতা পেয়ে

আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। এতে মাহবুব-নাছিমা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে

বিভিন্ন ধরণের ষড়যন্ত্র করতে থাকে। বাহির থেকে ধারালো ও অগ্নেয়াস্ত্রসহ

সন্ত্রাসীদের ভাড়া করে এনে বাড়িতে রাখে আমাদের হত্যা করতে। এজন্য তার

দুটি কুকুর পোষতাম। তারও একটি ২১ মার্চ রাতে বিষ খাইয়ে হত্যা

করেছে। ২৪ মার্চ (আজ) দুপুরে জুমার নামাজের পূর্বে গুলি করে হত্যার

হুমকি দিয়েছে। ছেলের মতো তোকেও নির্ধারিত সময়েই হত্যা করবো বলে

অব্যাহত হুমকি দিচ্ছে মাহবুব ও নাছিমা। এমন করেই লিখিত অভিযোগে

বর্ণনা দিলেন পুত্রহারা শোকে কাতর বৃদ্ধ আমজেদ আলী। তিনি বর্তমানে

একা চলতে সাহস পাচ্ছেন না। তাই স্ত্রীকে নিয়ে ঝালকাঠির সাংবাদিকদের

কাছে চোখের জলে বুক ভাসিয়ে এসব অভিযোগ করেন তিনি।

Top