আজ : সোমবার, ২৬শে জুন, ২০১৭ ইং | ১২ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

প্রতিবন্ধীরা ভাতা না পেলেও পেয়েছে প্রতিবন্ধীর কার্ড

সময় : ৫:৩০ অপরাহ্ণ , তারিখ : ১২ এপ্রিল, ২০১৭


মাহবুব হাসান টুটুল,মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার

সাহেবনগর গ্রামে ওরা প্রতিবন্ধী হওয়ায় সমাজের আর সব মানুষের মত

স্বাভাবিক ভাবে চলাচল করতে পারেনা। ওরা জীবন সংসারের বোঝা হয়ে জীবন

যাপন করে। সরকারী ভাবে কোন সাহায্য সহায়তা না পেলেও কপালে জুটেছে

একটি প্রতিবন্ধী কার্ড। এ প্রতিবন্ধী কার্ড নিয়ে সরকারের বিভিন্ন

দপ্তর ও চেয়ারম্যানের বাড়ি ঘুরেও কোন লাভ হয়নি। তাই গাংনী উপজেলা

নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে এসেছি। উনি যদি দয়া করেন।’

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কাজিপুর ইউনিয়নের সাহেবনগর গ্রামের

প্রতিবন্ধী বৃদ্ধ সামছুদ্দীন মঙ্গলবার বিকেলে গ্রামের বেশ কয়েকজন

প্রতিবন্ধীকে নিয়ে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নালিশ করতে এসে

সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

শুধু সামছুদ্দীন নয় আরও গ্রামের ১৫ জন প্রতিবন্ধী এসেছিলেন ভাতার

দাবিতে। এদের মধ্যে কেউ শারিরিক, কেউ মানসিক আবার কেউ দৃষ্টি

প্রতিবন্ধী। গাংনীর ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম জামাল

আহমেদ তাদের কথা শোনেন এবং তারা যাতে ভাতা পান সে ব্যাপারে

সহযোগীতার আশ্বাস দেন।

ষাটোর্ধ শারীরিক প্রতিবন্ধি আহসান হাবিব জানান, ২০০২ সালে সড়ক

দুর্ঘটনার কারণে আমার একটি হাত কেটে ফেলতে হয়েছে। একারণে কোন

কাম কাজ করতে পারিনি। সংসার চালাতে খুব কস্ট হয়। চেয়ারম্যান মেম্বরদের

কাছে গেলে কোনো সহযোগীতা পাইনি। অবশেষে গাংনী উপজেলা

নির্বাহী স্যারের কাছে এসেছি। স্যারের মর্জি হলে আমাদের জন্য কিছু

হয়তো করবেন।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী নিলচাঁদ জানান, আমরা যারা প্রতিবন্ধী চেয়ারম্যান

তাদের সহযোগীতা করেন না। অথচ যারা স্বচ্ছল স্বাবলম্বী তারা ঠিকই

বিভিন্ন সহযোগীতা পায়।

এ ব্যাপারে কাজিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাহাতুল্লাহ জানান,

কাজিপুর ইউনিয়নে ৫১ জন প্রতিবন্ধীকে তালিকা ভুক্ত করা হয়েছে। এদের

মধ্যে কয়েকজন ভাতা পেয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকলেই ভাতা পাবেন।

গাংনী উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম জামাল আহমেদ

জানান, আমার কাছে প্রতিবন্ধীরা এসেছিলেন। তাদের সব কথা অমি

শুনেছি। তাদের সামনে রেখেই কাজিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কে ফোন

দিয়েছিলাম । এবার সুযোগ পেলেই তাদের সাহায্য সহযোগীতা করবেন

বলে চেয়ারম্যান আমাকে জানিয়েছেন। এছাড়াও প্রতিবন্ধীরা যাতে ভাতা

পায় সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।

Top