আজ : বৃহস্পতিবার, ২৭শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং | ১৪ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

প্রতিরক্ষা চুক্তি জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে: রিজভী

সময় : ৫:৪৮ অপরাহ্ণ , তারিখ : ০৯ এপ্রিল, ২০১৭


ঢাকা : বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাড. রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের সাথে নতজানু হয়ে প্রতিরক্ষা বিষয়ক সমঝোতার যে গোলামির স্বাক্ষর করেছেন বাংলাদেশের জনগণ সেটি সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে।
রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল আয়োজিত “৫৪ টি অভিন্ন নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা চাই দেশ বিরোধী কোন চুক্তি মানি না” শীর্ষক এক মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি সৈয়দ এহসানুল হুঁদার সভাপতিত্বে ও মহাসচিব মোঃ রফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমতউল্লাহ, বাংলাদেশের ন্যাপের মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, জাগপা সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি মহাসচিব এম.এম. আমিনুর রহমান, বিএমএল মহাসচিব এডভোকেট শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, এনডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মঞ্জুর হোসেন ঈশা, কল্যাণ পার্টি ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদুর রহমান তামান্না, জাতীয় দল প্রচার সম্পাদক আবুল মনসুর ভুঁইয়া প্রমুখ।

প্রতিরক্ষা বিষয়ক চুক্তি প্রসঙ্গে রিজভী আহমেদ বলেন, এই চুক্তিতে দেশের সম্মতি নেই। জনগণ এই চুক্তি বাস্তবায়ন হতে দেবে না। আমরা আমাদের প্রতিরক্ষা নিজেদের মত সুন্দর করে সাজাবো। ভারত বাংলাদেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থার ভিতরে ঢুকে সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করার জন্যই এই চুক্তিটি করতে বাধ্য করেছে। গতকালের এই দিনটি বাংলাদেশের ইতিহাসে কালো অধ্যায় হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে।

তিনি আরও বলেন, ভারতকে মনে রাখতে হবে- তাদের সাথে প্রতিরক্ষা চুক্তি বিশেষ একটি রাজনৈতিক দল তাদের অবৈধ ক্ষমতাকে দীর্ঘস্থায়ী করার জন্য করেছে। এটি বাংলাদেশের নয়, এটি জনসমর্থনহীন একটি রাজনৈতিক দলের চুক্তি।

‘ভারতের সম্পর্ক বাংলাদেশের জনগণের সাথে নেই, আছে শুধু বিশেষ একটি রাজনৈতিক দলের সাথে’ এমন মন্তব্য করে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ভারত তাদের পছন্দের দল পছন্দের শাসককে আজীবন ক্ষমতায় রাখতে চান। যার কারণে তাদেরকে ইচ্ছামত ব্যবহার করছেন। তারা মনে করে বাংলাদেশের স্বাধীনতা তাদের দয়ার দান। কিন্তু তারা জানে না বাংলাদেশ নেপাল, ভূটান, সিকিম নয়। বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করেছে নিজস্ব স্বকীয়তায়।

সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে রিজভী বলেন, সরকারের অগণতান্ত্রিক আচরণে জনগণ আজ চারদিক থেকে ফুঁসে উঠেছে। তারা আর সহ্য করতে পারছে না। আগামী দিনে তারা যেকোনো গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ঝাপিয়ে পড়বে।

Top