আজ : মঙ্গলবার, ১৯শে জুন, ২০১৮ ইং | ৫ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

পথ শিশুর টাকা কেড়ে নিয়ে আইসক্রিম খেল পুলিশ কর্মকর্তা, তারপর..


পুলিশ নাকি জনগনের বন্ধু। মাঝে মাঝে সেই কথাটিকে রুপকথার কল্পলোকের মত মনে হলেও হতে পারে। এবার যেমন তেমনই এক কান্ড করে বসল এক পুলিশ কর্মকর্তা। একুশে বই মেলায় দায়িত্বরত সেই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, দুই পথ শিশুর ফুল বিক্রির টাকা কেড়ে নিয়ে আইসক্রিম খেয়েছেন তিনি। গতকাল শনিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় দোয়েল চত্বরে এই ঘটনা ঘটে। তবে জনতার চাপের মুখে শেষ পর্যন্ত টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হয়েছে সেই পুলিশ কর্মকর্তা।

ঘটনাস্থলে থাকা একজন জানান, দুই শিশুকে মেরে তাদের কাছ থেকে ফুল বিক্রির ৩২০ টাকা কেড়ে নিয়ে তাদের মারধর করে। পরে মানুষের চাপের মুখে ৪০০ টাকা ফেরত দিতে বাধ্যহন তিনি।

ঘটনায় ভুক্তভোগী দুই শিশু তুলু ও জিহাদ বলেন, ‘আমরা ফুল বেচতাছিলাম। এক বেডি আইয়া ফুলের দাম জিগায়। আমি কইছি ৫০। বেডি কইছে ২০। ওইসুম বেডি খারাপ ব্যবহার করছে। আবার ওই বেডি জুতা দিয়া মাইরা দিছে। আমি কিছুই কই নাই। তারপরে বেডি বানাইয়া-ছুনাইয়া কয় কি লাত্থি দিছে। ’

তুলো বলে, ‘ওইসুম পুলিশও মারছে। এক পুলিশ থাপ্পর দিছে। ওরা কয় ৫০ বেচলে মারমু। পরে পুলিশ আমারে কয়, ‘তরথাই টাকা আছে?’ আমার ২২০ আর ওর (জিহাদ) কাছ থেইকা ১০০ টাকা লইয়া পুলিশ কয় কী ‘ওই দৌড় দে একটা’। ওরে (জিহাদ) দৌড় দিয়া ঘুরাইল, আর আমি কানতে কানতে আইছি। দেখলাম কী, পুলিশ তিনটা আইসক্রিম কিইন্যা খাইয়া হালাইল! ওরা ওইসুম আমাগো গালিও দিছে। কয় কী ‘ওই ভুচকির ঘরের ভুচকি’, ‘এই ন…র পোলা’। ’

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী অঙ্কন বলেন, ‘বাংলা একাডেমির সামনে এই দুই ছেলেকে আমি কাঁদতে দেখি। পরে তারা জানায় পুলিশ তাদের কাছ থেকে টাকা কেড়ে নিয়েছে। ওই সময় আমি পুলিশ কর্মকর্তাদের টাকা ফিরিয়ে দিতে জোর করলে লোকজন জড়ো হয়ে যায়। তখন পুলিশ কর্মকর্তা টাকা ফিরিয়ে দেন।

Top