আজ : শুক্রবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৩রা ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব পানি দিবস আজ

সময় : ৩:০৬ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ২২ মার্চ, ২০১৭


আজ বুধকার বিশ্ব পানি দিবস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশেও নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালিত হচ্ছে। রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন।

দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘বর্জ্য পানি’। এ উপলক্ষে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয় বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সন্মেলন কেন্দ্রে আলোচনা সভা ।

এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বীর প্রতীক, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি রমেশ চন্দ্র সেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মূখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) আবুল কালাম আজাদ উপস্থিত থাকবেন।

এর আগে সকাল সাড়ে আটটায় সংসদ ভবনের দক্ষিন প্লাজা হতে বিআইসিসি পর্যন্ত একটি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে পানির সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় দেশের সবাই এগিয়ে আসবেন বলে প্রত্যাশা ব্যাক্ত করেছেন। তিনি বলেন, পানিদূষণ এবং জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে শুষ্ক মৌসুমে পানির অনিশ্চিয়তার কারণে খাদ্য উৎপাদন, পরিবেশ, জনস্বাস্থ্য ঝুঁকির মুখে পড়ছে।

বর্ষা মৌসুমে অতিবৃষ্টি বা বন্যা ও জলাবদ্ধতার কারণে জনদুর্ভোগ এবং সম্পদের ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়। এ সমস্যা সমাধানকল্পে পানিধারণ ক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নদীসমূহের ড্রেজিং এবং খাল পুনঃখনন কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে বলেও বাণীতে তিনি উল্লেখ করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জীববৈচিত্র্য টিকিয়ে রাখার জন্য কৃষি, শিল্পসহ সকল ক্ষেত্রে ব্যবহারযোগ্য পানির প্রাপ্যতার উপর গুরুত্বারোপ করেছেন।

তিনি বলেন, ভূগর্ভস্থ পানির অত্যাধিক ব্যবহার, লবণাক্ততা বৃদ্ধি, জনসংখ্যা বৃদ্ধি, নগরায়ণ ও শিল্পায়ন, মারাত্মক পরিবেশ দূষণ, পানিপ্রবাহে কৃত্রিম বাধা সৃষ্টি ও জলবায়ু পরিবর্তন সুপেয় পানির উৎসকে ক্রমশ অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী আশা করেন, দিবসটি পালনের মাধ্যমে পানি ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়ে সবার সচেতনতা বৃদ্ধি পাবে।

Top