আজ : বুধবার, ২২শে আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৮ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

মেহেন্দিগন্জের উলানিয়ার আলতু গ্রুপের ভয়ে, দেশছাড়া ছিলেন সাবেক চেয়ারম্যান!

সময় : ৮:৪৩ অপরাহ্ণ , তারিখ : ১৩ এপ্রিল, ২০১৭


নিয়াজ মো :: উলানিয়ার ইউ পি চেয়ারম্যান আলতাফ সরদার ওরফে আলতু সিকদারের ক্যাডার বাহিনীর ভয়ে মাসের পর মাস নিজের এলাকা ছাড়া এবং দেশ থেকেও পালিয়েছিলেন সাবেক চেয়ারম্যান জামাল মোল্লা। গত ৭ই জুলাই ২০১৬ ঈদের দিন নামাজের পরপরই দেশীয় ধারালো অস্রসহ জামাল মোল্লার বাড়িতে হামলা করে আলতু গ্রুপ। এ সময় বহু কর্মী গুরুতর আহত হয় বলে জানা যায়। এক ব্যাক্তির হার্ট এ্যাটাকে মৃত্যু হলেও তা খুন হয়েছে বলে চালিয়ে দিতে চেয়েছিলেন বর্তমান চেয়ারম্যান। মামলাটি সি,আই,ডি তদন্ত অবস্থায় রয়েছে। ঘটনার দিনই এলাকাছাড়ে জামাল মোল্লা গ্রুপের সব নেতা কর্মি।

জানাযায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম নৌরুটে চলমান বেপরোয়া চাঁদাবাজি নিয়ে দন্দ চলে আসছে আলতু গ্রুপ ও সাধারন কর্মীদের মধ্যে। তখন সাধারন কর্মীদের পক্ষে কথা বললে শুরু হয় দু গ্রুপের হামলা মামলা। প্রচলিত আছে যে মেঘনার এই জলদস্যু এখন জনপ্রতিনিধি হলেও ইলিশ থেকে ৫% এবং চিংড়ি থেকে ১% চাঁদা নিয়য়মিত আদায় করে। বহুবার আলতু বাহিনীর নামে মানববন্ধন হলেও কোন প্রতিকার পায়নি ভুক্তভোগী জনতা। জেলে পাড়া দিন কাটাচ্ছে ভয়ে আতংকে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্থানীয় লোক জানান, আলতু সরদার আগের জীবনে দূধর্ষ ডাকাত ছিলেন, পরে বাহিনী তৈরি করে যা এখনও সক্রিয়। মেঘনার প্রতি জাহাজ, নৌকা,ট্রলার থেকে চাঁদাবাজি করে রসদ যোগায় আলতাফ সরদার।

তিনি আরও বলেন, আলতাফ ভোট চুরি করে চেয়ারম্যান হয়েছে। এখন সাধারন মানুষও জিম্মি। স্থানীয় এম,পি পংকজ দেবনাথের রাজনিতী করে দেখে কেউ কিছু বলতে সাহস পায়না বলে জানায় স্থানীয় লোকজন। এ বিষয়ে সাবেক চেয়ারম্যান জামাল মোল্লা বলেন, বহুদিন ধরে আমি ও আমার সমর্থকবৃন্দ মেহেন্দিগন্জের বাইরে ছিলাম। এখনও অস্র মহরা ও হোন্ডা মহরা দিচ্ছে আলতু ক্যাডার গ্রুপ। সাধারন মানুষ আমার পাশে থেকে এদের মোকাবেলার চেষ্টা করছে।

Top