আজ : বৃহস্পতিবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৭ ইং | ২রা ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

যারা গণহত্যা দিবস পালন করবে না তারা জাতীয় বেঈমান

সময় : ১২:০৫ অপরাহ্ণ , তারিখ : ১৩ মার্চ, ২০১৭


ঢাকা : আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, ২৫ মার্চকে যারা গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করবে না, তারা দেশের মানুষের কাছে জাতীয় বেঈমান হিসেবে পরিচিত হবে। তিনি সোমবার সকালে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। সংগঠনের উপদেষ্টা চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অল ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ গণি ও বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি মো. জিন্নাত আলী খান জিন্নাহ। আওয়ামী লীগের মুখপাত্র ড. হাছান মাহমুদ বলেন, জাতীয় সংসদে ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস হিসেবে পালনের প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে পাশ হয়েছে। কিন্তু বিএনপি এ বিষয়ে কোন কথা বলছে না এবং এ প্রস্তাব পাশকে অভিনন্দনও জানায়নি। তিনি বলেন, ‘যারা ২৫ মার্চকে গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করবে না তারা জাতির কাছে জাতীয় বেঈমান হিসেবে পরিচিত হবে।’ ড. হাছান বলেন, বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট স্বাধীনতা বিরোধীদের প্লাটফরমে পরিণত হয়েছে। কারণ এ জোটের বেশির ভাগই স্বাধীনতা যুদ্ধের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিল এবং পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর সহযোগী হিসেবে কাজ করেছিল। এ বিষয়ে তিনি আরো বলেন, বিএনপি নেতৃত্বাধীন স্বাধীনতা বিরোধীদের এ প্লাটফরম বর্তমানে জঙ্গীজোটে পরিণত হয়েছে। তারা জাতীয় বেঈমান হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছে। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করার পর স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির সহায়তায় গুপ্তচর হিসেবে এবং বাধ্য হয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেওয়া কতিপয় মুক্তিযোদ্ধা বঙ্গবন্ধুকে হেয় করার চেষ্টা করেছিল। তারা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে নায়ক বানানোর চেষ্টা করেছিল। যারা বঙ্গবন্ধুকে ইতিহাস থেকে সরিয়ে ফেলার চেষ্টা করেছিল তারাই স্বাধীনতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধীদের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়েছিল।

Top