আজ : বৃহস্পতিবার, ২৪শে আগস্ট, ২০১৭ ইং | ৯ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রফতানি আয় কমেছে

সময় : ১০:০৯ পূর্বাহ্ণ , তারিখ : ০৯ মার্চ, ২০১৭


চলতি (২০১৬-১৭) অর্থবছরের প্রথম আট মাসে (জুলাই-ফেব্রুয়ারি) অর্জিত হয়নি রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা। গত অর্থবছরে রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হলেও গত আট মাসে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১২২ কোটি ২৮ লাখ ডলার আয় কম হয়েছে, যা শতকরায় ৫ দশমিক ০৮ শতাংশ।

একই সঙ্গে রফতানি আয়ের সবচেয়ে বড় খাত তৈরি পোশাকেও লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হয়েছে। রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) হালনাগাদ প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

ইপিবির তথ্য বিশ্লেষণে দেখা গেছে, আলোচ্য সময়ে রফতানি আয় হয়েছে ২,২৮৩ কোটি ৬২ লাখ মার্কিন ডলার, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১২২ কোটি ২৮ লাখ ডলার বা ৫ দশমিক ০৮ শতাংশ কম। চলতি অর্থবছরের প্রথম আট মাসে রফতানি লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২,৪০৫ কোটি ৯০ লাখ ডলার। তবে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন না হলেও গত বছরের তুলনায় রফতানি আয়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৩ দশমিক ২২ শতাংশ।

রফতানি আয়ের ৮০ শতাংশই আসে তৈরি পোশাক খাতের উভেন এবং নিটওয়্যার রফতানি থেকে। গত আট মাসে এ দুই খাতের রফতানি আয় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কমেছে। এর মধ্যে নিটওয়্যার ১ দশমিক ৪৯ শতাংশ এবং উভেন খাতে কমেছে ৯ দশমিক ২৮ শতাংশ। ফলে এর প্রভাব পড়েছে সামগ্রিক রফতানি আয়ে।

আলোচ্য সময়ে লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় তৈরি পোশাক খাতের নিটওয়্যারে রফতানি আয় ১ দশমিক ৪৯ কমেছে। এ সময়ে নিটওয়্যারে রফতানি আয় হয়েছে ৯০৭ কোটি ৬২ লাখ ডলার। লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৯২১ কোটি ৩৩ লাখ ডলার।

একই সময়ে তৈরি পোশাকের অন্যতম আরেক খাত উভেনে রফতানি আয় হয়েছে ৯৫৬ কোটি ২৬ লাখ ডলার, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৯ দশমিক ২৮ শতাংশ কম।

একক মাস হিসেবে চলতি অর্থবছরের ফেব্রুয়ারিতে ৩১০ কোটি ৭০ লাখ মার্কিন ডলার লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে রফতানি আয় হয়েছে ২৭২ কোটি ৬১ লাখ ডলার। অর্থাৎ ফেব্রুয়ারিতে রফতানি লক্ষ্যমাত্রা কমেছে ৯ দশমিক ৬৪ শতাংশ। আর গত বছরের ফেব্রুয়ারির তুলনায় ৪ দশমিক ৪৯ শতাংশ কম।

২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৯ দশমিক ৭৭ শতাংশ বেড়ে রফতানি হয়েছিল ৩ হাজার ৪২৫ কোটি ৭১ লাখ মার্কিন ডলারের পণ্য। এর উপর ৮ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ধরে চলতি অর্থবছর ৩ হাজার ৭০০ কোটি মার্কিন ডলার রফতানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে সরকার।

Top