আজ : সোমবার, ১৬ই জুলাই, ২০১৮ ইং | ১লা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নাটোর থেকে নিউইয়র্কঃ জাতিসংঘে বাংলার সবুজ


জেলা প্রতিনিধি, নাটোরঃ
প্রথম কোনো বাংলাদেশী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অবস্থিত জাতিসংঘের সদর দফতরে পি-ফোর শ্রেণিতে নিয়োগ পেয়েছেন ড. এ এস এম সাহাবুদ্দিন সবুজ। ১৯৬টি দেশের ১৮৫ জন প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে তিনি প্রথম স্থান অধিকার করেন। জাতিসংঘের স্বাস্থ্য বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ তাঁকে নিয়োগ প্রদান করেন।

মোঃ শাহজাদ মিয়া ও নূরজাহান বেগমের একমাত্র পুত্র সন্তান ড. সাহাবুদ্দিন সবুজ নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার ধুইপল গ্রামে ১৯৮৪ সালের ৬ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। শিক্ষাজীবনে ২০০০ সালে কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল থেকে এসএসসি ও বাংলাদেশ রাইফেলস্ স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে ২০০২ সালে কৃতিত্বের সঙ্গে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। পরবর্তীতে ২০০৮ সালে তিনি ইউনিভার্সিটি অব ডেভোলেপমেন্ট অলটারনেটিভ (ইউডা) থেকে মলিউকুলার মেডিসিনে এবং ২০০৯ সালে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একই বিষয়ে ডিগ্রী অর্জন করেন।

এরপর ২০১১ সালে পদক্ষেপ নামের একটি বেসরকারী সংস্থায় এক বছরের জন্য চাকরি করেন এবং ২০১২ সালে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে সিনিয়র রিসার্চ অ্যাসোসিয়েট হিসেবে চাকরি জীবন শুরু করেন।

এরপরের গল্পটা আরো দুঃসাহসিক ও মেধার স্বাক্ষরের। সেপ্টেম্বর ২০১২ সালে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন কর্তৃক প্রদত্ত ‘এরাসমুস মুনডাস পিএইচডি’ স্কলারশিপ প্রোগামের তিনি নির্বাচিত হন। এরপর তিনি পাড়ি জমান ইউরোপে। ২০১৭ সালে ২৫৬ জন পিএইচডি শিক্ষার্থীর মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করেন এবং ইউনিভার্সিটি অব বার্সেলোনা- স্পেন, এবং ভি ইউ ইউনিভার্সিটি অব নেদারল্যান্ড থেকে যৌথভাবে ইন্সটিটিউট অব ট্রপিকাল মেডিসিনে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন।

এরই মাঝে একবছর বেলজিয়ামের ব্রাসেলস্ ইউনিভার্সিটিতে পাবলিক হেলথ রিসার্চার হিসেবে কমরত ছিলেন। পিএইচডি চলাকালীন সময় যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক আন্তর্জাতিক জার্নাল প্লস-ওয়ান এবং ইউরোপভিত্তিক ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালে তার দুটি করে গবেষণাপত্র প্রকাশ পায়। যা এখন পৃথিবীর বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানো হচ্ছে। এরই মাঝে তিনি যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, দক্ষিণ আফ্রিকাসহ পৃথিবীর ৩৭টি দেশে বিভিন্ন সেমিনার ও ফেলোশিপে যোগদান করেন। তিনি ২০১৭ সালে আবার বাংলাদেশে ফিরে আসেন এবং ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে সহকারী বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হিসেবে পর্যন্ত কমাত ছিলেন।

তিনি দেশবাসীর কাছে তার জন্য দোয়া কামনা করে তিনি বলেন, একজন সফল মানুষ হতে হলে শুধু মেধাবী নয় বরং সৎ ও বিনয়ী হওয়াটা অত্যন্ত জরুরী। মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তিনি নিউইয়র্কে জাতিসংঘের স্বাস্থ্য বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ-এ কাজে যোগদানের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ...
Top