১৯শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, শনিবার

সিগারেট খাওয়াকে কেন্দ্র করে কাঠমিস্ত্রি খুন

আপডেট: অক্টোবর ২, ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

জেলা প্রতিনিধি, নাটোরঃ নাটোরের বড়াইগ্রামে সিগারেট খাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশীর বাঁশের মুগুর ও কাঠের বাটামের আঘাতে মজনু শেখ (২৬) নামে এক কাঠমিস্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। মজনু কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলো বলে জানা গেছে। রোববার দিনগত রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মজনু শেখ গড়মাটি গ্রামের নুর আলী শেখের ছেলে এবং অভিযুক্ত কোরবান আলী একই গ্রামের আছের উদ্দিনের ছেলে।

বড়াইগ্রাম থানার এসআই দিলীপ কুমার দাস জানান, মজনু পেশায় একজন কাঠমিস্ত্রী। কিন্তু গত কয়েক মাস ধরে তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় ছিলেন। রোববার রাতে গড়মাটি মাঝিপাড়া তিন রাস্তার মোড়ে কুতুব আলীর দোকানের সামনে বেঞ্চে বসে মজনু স্থানীয় আজগর আলী নামে এক ব্যাক্তির কাছে সিগারেট চান। এ সময় সেখানে উপস্থিত প্রতিবেশী কোরবান প্রামাণিক সিগারেট চাওয়ার কারণে মজনুকে গাল-মন্দ করলে তাদের মধ্যে বিতর্ক বাধে। এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হলে কোরবান আলী দোকানের পাশে পড়ে থাকা কাঠের বাটাম ও বাঁেশর মুগুর দিয়ে মজনুর মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় উপর্যুপরি আঘাত করেন। এ সময় মজনু প্রাণে বাঁচতে দৌড়ে পালাতে গিয়ে পাশের ডোবায় পড়ে যান। পরে উপস্থিত অন্যান্যরা মজনুকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে বাড়িতে পৌছে দেন। এ সময় তার নাক-কান দিয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। এ অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়। ঘটনার পর থেকে ঘাতক কোরবান পলাতক রয়েছেন। তিনি আরও জানান, খবর পেয়ে সকালে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতির পাশাপাশি ঘাতক কোরবান আলীকে গ্রেফতার করতে সর্বাত্মক চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

অক্টোবর ০১, ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন