আজ : বৃহস্পতিবার, ২৯শে জুন, ২০১৭ ইং | ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

হাতীবান্ধা উপজেলা চেয়ারম্যান ৮ দিনের সফরে নেদারল্যান্ড ও বেলজিয়াম যাচ্ছেন

সময় : ২:৪৬ অপরাহ্ণ , তারিখ : ১১ এপ্রিল, ২০১৭


আসাদুজ্জামান সাজু, লালমনিরহাট:

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলা চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন বাচ্চু

৮ দিনের সরকারী সফরে নেদারল্যান্ড ও বেলজিয়াম যাচ্ছেন। আগামী ১৮

এপ্রিল থেকে ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত তিনি ওই দুই দেশে অবস্থান করবেন। ২৮

সদস্যের একটি দলের সঙ্গে তিনি নেদারল্যান্ড ও বেলজিয়ামের স্থানীয়

সরকার শাসন ব্যবস্থা পরিদর্শন করবেন বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের যুগ্ন সচিব অমিতাভ সরকার ও সাতক্ষীরা সদর

উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু’র নেতৃত্বে এ দলে রয়েছেন,

১৪ জন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, ৬ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও ৮ জন

সরকারী কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন বাচ্চু

১৯৬৩ সালের ৩ সেপ্টেম্বর লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার বাড়াইপাড়া

গ্রামের একটি সম্ভান্ত মুসলিম পরিবারের জন্ম গ্রহন করেন। ৮ ভাই

বোনের মধ্যে তিনি সপ্তম।

১৯৭৯ সালে তিনি হাতীবান্ধা এসএস উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি

পাশ করে বগুড়ার চন্দন বাইশা কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। পরে

হাতীবান্ধা আলিমুদ্দিন ডিগ্রী কলেজে বিএ’তে ভর্তি হন। কিন্তু

পরবর্তী এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়ায় ও রাজনৈতিক

কর্মকান্ডে সক্রিয় ভুমিকা রাখায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের

আদর্শে লালিত এ মানুষটির বিএ পাশ করা সম্ভব হয়নি।

১৯৭৮ সালে ৯ ম শ্রেণীর ছাত্র থাকা অবস্থায় ২১ সদস্য নিয়ে তিনি

হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগ গঠন করে প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক হন। পরে

১৯৮১ সালে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, ১৯৮৪ সালে উপজেলা

যুবলীগের সভাপতি, ১৯৮৬ সালে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক

সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৮৭ সালে তৎকালীন উপজেলা আওয়ামীলীগের

সম্পাদক নূরুজ্জামান বিএসসি এরশাদ হঠাও আন্দোলনের মামলায় জেল-

হাজতে গেলে লিয়াকত হোসেন বাচ্চু ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের দায়িত্ব পান।

১৯৯১ সালে ২০১০ সাল পর্যন্ত তিনি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ

সম্পাদক ও ২০১১ সালে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নির্বাচিত

হন। তিনি আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেয়ে ২০১৪ সালে উপজেলা পরিষদ

চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন বাচ্চু বিভিন্ন

আন্দোলন সংগ্রামে একাধিক রাজনৈতিক মামলার আসামী ছিলেন।

৩৯ বছর ধরে তিনি তার প্রাণের সংগঠন আওয়ামীলীগকে সু-সংগঠিত

করতে নিরলস ভাবে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। ২ সন্তানের জনক

সংগ্রামী এ মানুষটি রাজনীতির পাশাপাশি হাতীবান্ধা মতিয়ন নেছা

মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়সহ একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের

প্রতিষ্ঠাতা। তার দক্ষ নেতৃত্বের কারণে হাতীবান্ধা উপজেলাকে ২০১৫

সালে বাল্য বিয়ে মুক্ত ও ২০১৬ সালে স্কাউট উপজেলা ঘোষনা করা সম্ভব

হয়েছে। এছাড়াও তিনি হাতীবান্ধা এসএস হাইস্কুল এন্ড কলেজ,

দইখাওয়া আদর্শ কলেজ ও কেতকীবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা

কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

হাতীবান্ধা উপজেলা চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন বাচ্চু বলেন, আমি

সরকারী এ সফরে ওই দুই দেশ পরিদর্শন করে এসে তাদের আদলে আমার

এলাকার উন্নয়নে চেষ্টা করবো। এ বিদেশ সফরে সকলে আমার জন্য

দোয়া করবেন।

Top