২৩শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, মঙ্গলবার

হুরগাদা টুরিস্ট সিটিতে বাংলাদেশী ও ভারতীয় ব্যাবসায়ীদের আমন্ত্রন জানালেন রেড সি প্রদেশের গভর্নর

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মিশর থেকে ইউ.এইচ. খান : লোহিত সাগরের তীরে মিশরের বেশ কিছু পর্যটন নগরী রয়েছে। অনেক গুলো শহরকে লাস ভোগাসের সাথে তুলনা করা হয়। সকল ধরনের অত্যাধুনিক আমোদ প্রমোদের সুবিধা সহ খরচ তুলনামূলক কম এবং লোহিত সাগরের অপরুপ দৃশ্য প্রতিনিয়ত পর্যটক টানছে। দিন দিন ফুলে ফেপে উঠছে শহরগুলির ব্যাবসা। গত ২৩ই ফেব্রুয়ারী শুক্রবার মিশরের বিখ্যাত পর্যটন নগরী হুরগাদার বিখ্যাত হোটেল আলফ লিলা ওয়া লায়লাতে আন্তর্জাতিক ভাস্কর্য প্রদর্শনীর সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। ২৭ টি দেশের বিখ্যাত ভাস্কর্য শিল্পিরা তাদের ভাস্কর্য প্রদশ্রন করেন। হুরগাদা শহরটি মিশরের রেড সি প্রদেশের অন্তর্গত।

অনুষ্ঠানের পর এক সংবাদ সম্মেলনে রেড সি প্রদেশের গভর্নর মেজর জেনারেল আহমেদ আব্দুল্লাহ বলেন “বিদেশীদের জন্য পর্যটন কেন্দ্রিক ব্যাবসা উন্মুক্ত। যে কোন বিদেশী যে কোন ধররেন হোটেল , ক্যাসিনো, বার, ক্লাব, রেস্টুরেন্ট, বিভিন্ন ধরনের স্পোর্টস, ডাইভিং , টুরিস্ট গাইড সহ বড় বা একে বারে ক্ষুদ্র কম্পানি অতি অল্প পুজিতে শুরু করতে পারবে। এছাড়া নতুন আইনে মিশরীয় কোন অংশীদার দরকার হবে না। বিদেশী নাগরিক এখন একাই শতভাগ অংশীদার হতে পারবেন। বাংলাদেশী সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে গভর্নর বলেন আমি “ব্যাক্তিগত ভাবে বাংলাদেশী ও ভারতীয়দের ভালবাসি। তারা খুব প্রফেশনাল। যদি কোন বাংলাদেশী বা ভারতীয় হুরগাদাতে কোন ব্যাবসা শুরু করতে চায় আমি ব্যাক্তিগত ভাবে সহায়তা করব। ব্যাবসা ছোট বা বড় হিসেবে কোন সমস্যা নেই। যদি ছোট একটি

চায়ের ক্যাফেটেরিয়াও খুলে তবু আমি সার্বিক সহায়তা করব। আমি বিশ্বাস করি বাংলাদেশী ও ভারতীয়রা খুব দ্রুত ব্যাবসা প্রসার করতে পারে ।”
অসংখ্য দেশী বিদেশি অতিথিদের অংশগ্রহনে পুরো অনুষ্ঠানের সমাপ্তি করা হয়।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন