আজ : শুক্রবার, ২০শে অক্টোবর ২০১৭ ইং | ৫ই কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

তিনি বিশ্ব মানবতার প্রতীক


সকল নিউজ আপডেট পেতে পেইজে লাইক দিন

প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে বিশ্ব মানবতার প্রতীকে পরিণত হয়েছেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা।জনগণের ভালবাসায় তিনি সিক্ত। একজন মানুষের জন্য জনগণের ভালবাসার চেয়ে বড় প্রাপ্তি আর কিছু নয়।

১৯৯৭ সালে পার্বত্য শান্তি চুক্তির সময়ও তাঁর নোবেল শান্তি পুরস্কার পাবার কথা ছিল। ২০১২ সালে যখন তাঁর বিশ্ব শান্তির দর্শন জনগণের ক্ষমতায়ন জাতিসংঘে সর্বসম্মত ভাবে গৃহীত হয় তখনো তাঁর নোবেল শান্তি পুরস্কার পাওয়ার কথা ছিল।কিন্তু আমরা আজ ব্যাথিত।

১০ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়ার যে বিরাট অর্থনৈতিক ঝুঁকি, সেই ঝুঁকিও পরাস্ত হলো মানবতার কাছে। এটা যদি বিশ্ব শান্তির পথ দেখানো না হয়, তাহলে বিশ্বশান্তি কী?

আমরা জানি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শান্তপূর্ণ ভাবে ভারতীয় সেনাবাহিনীকে ফেরত পাঠানোর পরও নোবেল শান্তি পুরস্কার পাননি। অহিংসবাদের প্রতীক, ভারতের জাতির পিতা মহাত্মা গান্ধীও নোবেল শান্তি পুরস্কার পাননি। ইন্দিরা গান্ধীও নোবেল শান্তি পুরস্কার পাননি।

আমরা জানি, শেখ হাসিনা মানুষের জন্য কাজ করছেন। ক্ষুধা, দারিদ্র পীড়িত একটি দেশকে আধুনিক উন্নত এবং সফল দেশ হিসেবে তুলে এনেছেন।বাংলাদেশকে একটি মর্যাদাশীল রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে পেরেছেন ।

Top