নিউজিল্যান্ডের মসজিদ হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের ৭০ হাজার ডলার দিলেন অস্ট্রেলিয়ার ‘এগ বয়’

গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে জুমার নামাজের সময় দুটি মসজিদে হামলা চালানো হয়। ওই হামলায় ৫১ জন নিহত এবং আরও ৪০ জন আহত হয়। ভয়াবহ ওই হামলার ঘটনা ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচার করেন হামলাকারী ব্রেন্টন ট্যারেন্ট।

ওই হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের প্রায় ৭০ হাজার ডলার সহায়তা দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার ‘এগ বয়’ খ্যাত উইল কনোলি। ক্রাইস্টচার্চে হামলার পর গত মার্চ থেকেই ‘এগ বয়’ নামে খুব জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন কনোলি। হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে অভিবাসী মুসলিমদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার এক সিনেটর। তার এমন মন্তব্যের পরেই তার মাথায় ডিম ভাঙেন ১৭ বছর বয়সী উইল কনোলি নামের এক কিশোর। ওই ঘটনায় পরপরই পুলিশ তাকে আটক করে। এরপরেই অনলাইনে তার আইনি লড়াইয়ে সহায়তার তহবিল গঠনের জন্য বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অনুদান আসা শুরু হয়।তবে আদালতে আইনি লড়াইয়ের মুখোমুখি হতে হয়নি তাকে। কিন্তু এ পর্যন্ত তার কাছে অনেক অনুদান এসেছে। সেজন্য অনুদান থেকে প্রায় ৯৯ হাজার ৯২২ অস্ট্রেলীয় ডলার দান করে দেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে কনোলি লিখেছেন, ক্রাইস্টচার্চের ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড থেকে যারা বেঁচে গেছেন তাদের জন্য আমি সব টাকা দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কারণ এসব টাকা আমার নিজের নয়। গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে জুমার নামাজের সময় দুটি মসজিদে হামলা চালানো হয়। ওই হামলায় ৫১ জন নিহত এবং আরও ৪০ জন আহত হয়। ভয়াবহ ওই হামলার ঘটনা ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচার করেন হামলাকারী ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। ওই হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের প্রায় ৭০ হাজার ডলার সহায়তা দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার ‘এগ বয়’ খ্যাত উইল কনোলি। ক্রাইস্টচার্চে হামলার পর গত মার্চ থেকেই ‘এগ বয়’ নামে খুব জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন কনোলি। হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে অভিবাসী মুসলিমদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার এক সিনেটর। তার এমন মন্তব্যের পরেই তার মাথায় ডিম ভাঙেন ১৭ বছর বয়সী উইল কনোলি নামের এক কিশোর। ওই ঘটনায় পরপরই পুলিশ তাকে আটক করে।

এরপরেই অনলাইনে তার আইনি লড়াইয়ে সহায়তার তহবিল গঠনের জন্য বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অনুদান আসা শুরু হয়।তবে আদালতে আইনি লড়াইয়ের মুখোমুখি হতে হয়নি তাকে। কিন্তু এ পর্যন্ত তার কাছে অনেক অনুদান এসেছে। সেজন্য অনুদান থেকে প্রায় ৯৯ হাজার ৯২২ অস্ট্রেলীয় ডলার দান করে দেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে কনোলি লিখেছেন, ক্রাইস্টচার্চের ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড থেকে যারা বেঁচে গেছেন তাদের জন্য আমি সব টাকা দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কারণ এসব টাকা আমার নিজের নয়।গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে জুমার নামাজের সময় দুটি মসজিদে হামলা চালানো হয়। ওই হামলায় ৫১ জন নিহত এবং আরও ৪০ জন আহত হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*