আজ : বুধবার, ১৮ই জুলাই, ২০১৮ ইং | ৩রা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

যুবলীগ নেতার স্ত্রী ছাত্রলীগ নেতার বউ হতে চাওয়ায় গৃহবধূর উপর পুলিশি প্রহরায় হামলা


কুষ্টিয়ার খোকসায় বিয়ের দাবিতে ছাত্রলীগ সভাপতি সায়েম হোসেন সুজনের বাড়িতে অবস্থান নেয়া সেই গৃহবধূর ওপর পুলিশি প্রহরায় হামলা করার অভিযোগ ওঠেছে সুজনের অনুসারীদের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার চুনিয়াপাড়া এলাকায় সুজনের বাড়িতে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

গৃহবধূর দাবি, থানায় তার অভিযোগ গ্রহণ করছে না পুলিশ। উল্টো তাকেই পুলিশ নানাভাবে হয়রানি করছে। তবে পুলিশ বলছে, থানায় অভিযোগ নিয়ে কেউ আসেনি।

হামলার নেতৃত্বদানকারী ছাত্রলীগ নেতা জাব্বির উল আলম জেম ও তরিকুল ইসলাম সুজনের অনুসারী বলে জানা গেছে।

জোয়ানা হোসেন রিমার উপজেলা যুবলীগের প্রাক্তন আহ্বায়ক আবু ওবাইদা সাফির সাবেক স্ত্রী।

গৃহবধূ রিমা জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে ছাত্রলীগ নেতা জাব্বির উল আলম জেম ও অটোরিকশাচালক তরিকুল ইসলাম আমার ঘরে এক ছেলেকে খাবার দিয়ে ঢুকিয়ে দিয়ে অশ্লীল গালিগালাজ করে ভিডিও করতে থাকে। যে ছেলেটি খাবার দিতে আসে আমি তাকে চিনি না। অপরিচিত ওই ছেলের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক আছে বলে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে তারা হামলা চালায়।

এদিকে গৃহবধূর ওপর হামলার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করে সুজনের অনুসারী অটোরিকশাচালক তরিকুল ইসলাম। এ ঘটনায় সুজনের অনুসারীরা সেই ভিডিওর লিংক বিভিন্ন মানুষের ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে ভাইরাল করতে অনুরোধ করেছে।

পরে রাতে পুলিশ গৃহবধূ জোয়ানা হোসেন রিমা ও কথিত ওই ছেলেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরে শুক্রবার সকালে গৃহবধূ রিমাকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

রিমা ও ওই ছেলেকে সুজনের বাড়ি থেকে থানায় নিয়ে আসার বিষয়ে জানতে চাইলে খোকসা থানা পরিদর্শক (তদন্ত) চাকলাদার আসাদুর রহমান বলেন, শুক্রবার সকালে রিমাকে থানায় আনা হয়েছে। এ বিষয়ে থানা ওসি নাজমুল হুদা আপনাদের বলতে পারবেন। তবে ৩ দিনেও রিমার ঘটনায় কোনো অভিযোগ থানায় আসেনি বলে দাবি করেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গত, বুধবার সন্ধ্যা থেকে স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে খোকসা উপজেলা ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে অনশন শুরু করে সাবেক যুবলীগ আহ্বায়ক আবু ওবাইদা সাফির সাবেক স্ত্রী জোয়ানা হোসেন রিমা। গনমাধ্যমে সংবাদটি প্রকাশের পর জেলাজুড়ে শুরু হয় তোলপাড়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঝড় উঠে ছাত্রলীগ নেতার পরকীয়া নিয়ে।

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ...
Top